ঢাকা ০৩:১৩ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ২৬ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নাগরপুরে ধান ক্ষেতের আইলে নারীর মরদেহ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৭:৫৭:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪ ৭ বার পড়া হয়েছে

oppo_1024

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক: টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ধান ক্ষেতের আইল থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১০ মে) সকালে উপজেলার কাঠুরী গ্রামের একটু আদুরে বারাপুষা এলাকার নির্জন ধান ক্ষেতের আইল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সে বেকড়া ইউনিয়নের বারাপুষা গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের স্ত্রী অঞ্জনা বেগম (৪২)। এটি পরিকল্পিত হত্যা নাকি নিছক দুর্ঘটনা এ নিয়ে এলাকায় চলছে নানা গুঞ্জন।

মৃতের ছোট ছেলের স্ত্রী প্রিয়া আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার সকাল দশ টার দিকে বাবার বাড়ি বেকড়া গ্রামের উদ্দেশ্যে নিজ বাড়ি থেকে বের হন অঞ্জনা বেগম । শুক্রবার সকাল আট টার দিকে খবর পান কাঠুরী গ্রামের নিজাম উদ্দিনের বাড়ীর পশ্চিম পাশের ধান ক্ষেতে এক মহিলার লাশ পরে আছে। ঘটনা স্থলে গিয়ে দেখতে পান তার শাশুড়ি মৃত অবস্থায় পড়ে আছে।

নিহত ওই নারীর পিতা গনি মিয়া বলেন, আমার মেয়ে কাল বাড়ীতে আসে নাই। সকালে তার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থলে আসি।

প্রত্যক্ষদর্শী বাহাদুর মিয়া বলেন, সকাল সাত টার দিকে ধান ক্ষেতে পানি দেওয়ার জন্য শ্যালোমেশিন ঘরে যাবার সময় ক্ষেতের আইলে মহিলার লাশ পড়ে থাকতে দেখি। পরে আশপাশের লোকজনদের বিষয়টি জানাই।

নিহত স্বামী মো. নজরুল ইসলাম জানান, গতকাল সকাল ৭টার দিকে কাজের জন্য বাহিরে চলে যাই। বাড়ী ফিরে এসে ছেলে বৌদের কাছে তাদের শাশুড়ীর কোথায় গেছে জানতে চাইলে তারা বলেন বাপের বাড়ী গেছে। সকালে খবর পাই ধান ক্ষেতে পরে আছে।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এইচএম জসিম উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষ করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েচে। নিহত স্বামী মো. নজরুল ইসলাম থানায় অপমৃত্যরে মামলা দায়ের করেছে । ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে ।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

নাগরপুরে ধান ক্ষেতের আইলে নারীর মরদেহ

আপডেট সময় : ০৭:৫৭:৩৯ অপরাহ্ন, শনিবার, ১১ মে ২০২৪

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক: টাঙ্গাইলের নাগরপুরে ধান ক্ষেতের আইল থেকে এক নারীর লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। শুক্রবার (১০ মে) সকালে উপজেলার কাঠুরী গ্রামের একটু আদুরে বারাপুষা এলাকার নির্জন ধান ক্ষেতের আইল থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়। সে বেকড়া ইউনিয়নের বারাপুষা গ্রামের মো. নজরুল ইসলামের স্ত্রী অঞ্জনা বেগম (৪২)। এটি পরিকল্পিত হত্যা নাকি নিছক দুর্ঘটনা এ নিয়ে এলাকায় চলছে নানা গুঞ্জন।

মৃতের ছোট ছেলের স্ত্রী প্রিয়া আক্তার জানান, বৃহস্পতিবার সকাল দশ টার দিকে বাবার বাড়ি বেকড়া গ্রামের উদ্দেশ্যে নিজ বাড়ি থেকে বের হন অঞ্জনা বেগম । শুক্রবার সকাল আট টার দিকে খবর পান কাঠুরী গ্রামের নিজাম উদ্দিনের বাড়ীর পশ্চিম পাশের ধান ক্ষেতে এক মহিলার লাশ পরে আছে। ঘটনা স্থলে গিয়ে দেখতে পান তার শাশুড়ি মৃত অবস্থায় পড়ে আছে।

নিহত ওই নারীর পিতা গনি মিয়া বলেন, আমার মেয়ে কাল বাড়ীতে আসে নাই। সকালে তার মৃত্যুর সংবাদ পেয়ে ঘটনা স্থলে আসি।

প্রত্যক্ষদর্শী বাহাদুর মিয়া বলেন, সকাল সাত টার দিকে ধান ক্ষেতে পানি দেওয়ার জন্য শ্যালোমেশিন ঘরে যাবার সময় ক্ষেতের আইলে মহিলার লাশ পড়ে থাকতে দেখি। পরে আশপাশের লোকজনদের বিষয়টি জানাই।

নিহত স্বামী মো. নজরুল ইসলাম জানান, গতকাল সকাল ৭টার দিকে কাজের জন্য বাহিরে চলে যাই। বাড়ী ফিরে এসে ছেলে বৌদের কাছে তাদের শাশুড়ীর কোথায় গেছে জানতে চাইলে তারা বলেন বাপের বাড়ী গেছে। সকালে খবর পাই ধান ক্ষেতে পরে আছে।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এইচএম জসিম উদ্দিন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্ত শেষ করে পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েচে। নিহত স্বামী মো. নজরুল ইসলাম থানায় অপমৃত্যরে মামলা দায়ের করেছে । ময়না তদন্তের রিপোর্ট পেলে বিস্তারিত জানা যাবে ।