ঢাকা ০৫:৩৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সিরাজগঞ্জে টাকা লেনদেনে বিরোধ থেকে একজন খুন

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:০১:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৮ ১৯ বার পড়া হয়েছে

সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার হোসেনপুর পূর্বপাড়া মহল্লায় পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত দর্পণ (৩৫) মহল্লার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।

থানা-পুলিশ, নিহত ব্যক্তির পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, হোসেনপুর মহল্লার রতন পার্শ্ববর্তী আবদুল বারীর কাছ থেকে এক লাখ টাকা নেন। বারীর ছেলেকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ওই টাকা নেন তিনি। কিন্তু চাকরি দিতে না পারায় টাকা ফেরত দেওয়া নিয়ে ঝামেলা চলছিল। নিহত দর্পণ রতনের ছোট ভাই।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রতন কয়েক দফায় ৮০ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছিলেন। সর্বশেষ ২০ হাজার টাকা গতকাল দেওয়ার কথা ছিল। এ নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। পরে এ নিয়ে সালিস বৈঠক বসে। সালিসে আজ বৃহস্পতিবার টাকা ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সালিস শেষে রতনের ছোট ভাই দর্পণের ওপর হামলা চালানোর ঘটনা ঘটে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে দর্পণের ওপর আঘাত করা হয়।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আলী জান বলেন, দর্পণের গলা ও বুকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. দাউদ বলেন, পাওনা টাকা আদায়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

সিরাজগঞ্জে টাকা লেনদেনে বিরোধ থেকে একজন খুন

আপডেট সময় : ১১:০১:২৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৮

সিরাজগঞ্জ পৌর এলাকার হোসেনপুর পূর্বপাড়া মহল্লায় পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বের জেরে এক ব্যক্তি খুন হয়েছেন। গতকাল বুধবার রাত ১০টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। নিহত দর্পণ (৩৫) মহল্লার মৃত ইদ্রিস আলীর ছেলে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশ তিনজনকে আটক করেছে।

থানা-পুলিশ, নিহত ব্যক্তির পরিবার ও এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, হোসেনপুর মহল্লার রতন পার্শ্ববর্তী আবদুল বারীর কাছ থেকে এক লাখ টাকা নেন। বারীর ছেলেকে চাকরি দেওয়ার কথা বলে ওই টাকা নেন তিনি। কিন্তু চাকরি দিতে না পারায় টাকা ফেরত দেওয়া নিয়ে ঝামেলা চলছিল। নিহত দর্পণ রতনের ছোট ভাই।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, রতন কয়েক দফায় ৮০ হাজার টাকা ফেরত দিয়েছিলেন। সর্বশেষ ২০ হাজার টাকা গতকাল দেওয়ার কথা ছিল। এ নিয়ে কথা-কাটাকাটি হয়। পরে এ নিয়ে সালিস বৈঠক বসে। সালিসে আজ বৃহস্পতিবার টাকা ফেরত দেওয়ার সিদ্ধান্ত হয়। সালিস শেষে রতনের ছোট ভাই দর্পণের ওপর হামলা চালানোর ঘটনা ঘটে। ধারালো অস্ত্র দিয়ে দর্পণের ওপর আঘাত করা হয়।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. আলী জান বলেন, দর্পণের গলা ও বুকে ধারালো অস্ত্রের আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে।

সিরাজগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. দাউদ বলেন, পাওনা টাকা আদায়ের ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যার হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় মামলা করার প্রস্তুতি চলছে।