ঢাকা ০৪:১০ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মির্জাপুরে মায়ের পরকীয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:১৩:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৮ ১৭ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মায়ের পরকীয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে। এ ঘটনায় ছেলে মো. কাউছার মীর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।শনিবার বিকেলে উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের ধানকী পাইকপাড়া গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পরে ছেলে কাউছারকে (২২) গ্রেফতার করে পুলিশ।এ ঘটনায় নিহতের স্বামী মো. ফজলু মীর বাদী হয়ে মির্জাপুর থানায় মামলা করেন। শনিবার রাতে কালিয়াকৈর উপজেলার রতনপুর এলাকা থেকে কাউছারকে গ্রেফতারের পর রোববার টাঙ্গাইলের আদালতে হাজির করা হয়। রোববার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে টাঙ্গাইলের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দিতে তিনি এ হত্যার কথা স্বীকার করেন।বিচারিক হাকিম মাহাবুবা নওরীন তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

শনিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে মির্জাপুর উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের পাইক পাড়া গ্রামের ফজলু মীরের স্ত্রী রিনা বেগম (৪৫) ঘরে ছিলেন। এ সময় তার বড় ছেলে কাউছার মীর (২০) হঠাৎ ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিনাকে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় রিনার স্বামী ফজলু মীর বাদী হয়ে রোববার মির্জাপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন মির্জাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শ্যামল কুমার দত্ত জানান, গ্রেফতারকৃত কাওসার মায়ের পরকীয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে স্বীকার করেছেন।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মির্জাপুরে মায়ের পরকীয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে

আপডেট সময় : ০৪:১৩:৩৫ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৯ এপ্রিল ২০১৮

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে মায়ের পরকীয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে মাকে কুপিয়ে হত্যা করেছে ছেলে। এ ঘটনায় ছেলে মো. কাউছার মীর আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে।শনিবার বিকেলে উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের ধানকী পাইকপাড়া গ্রামে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। পরে ছেলে কাউছারকে (২২) গ্রেফতার করে পুলিশ।এ ঘটনায় নিহতের স্বামী মো. ফজলু মীর বাদী হয়ে মির্জাপুর থানায় মামলা করেন। শনিবার রাতে কালিয়াকৈর উপজেলার রতনপুর এলাকা থেকে কাউছারকে গ্রেফতারের পর রোববার টাঙ্গাইলের আদালতে হাজির করা হয়। রোববার (২৯ এপ্রিল) বিকেলে টাঙ্গাইলের জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে জবানবন্দিতে তিনি এ হত্যার কথা স্বীকার করেন।বিচারিক হাকিম মাহাবুবা নওরীন তার জবানবন্দি রেকর্ড করেন।

শনিবার (২৮ এপ্রিল) বিকেলে মির্জাপুর উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের পাইক পাড়া গ্রামের ফজলু মীরের স্ত্রী রিনা বেগম (৪৫) ঘরে ছিলেন। এ সময় তার বড় ছেলে কাউছার মীর (২০) হঠাৎ ঘরে ঢুকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে রিনাকে কুপিয়ে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় রিনার স্বামী ফজলু মীর বাদী হয়ে রোববার মির্জাপুর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন মির্জাপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শ্যামল কুমার দত্ত জানান, গ্রেফতারকৃত কাওসার মায়ের পরকীয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে এ হত্যাকাণ্ড ঘটিয়েছে বলে স্বীকার করেছেন।