ঢাকা ০৪:৩৬ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মির্জাপুরে গণহত্যা দিবস পালিত

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৪:৪৪:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ মার্চ ২০১৮ ২১ বার পড়া হয়েছে

 

মো: আবুবকর সিকদার মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ এ যেনো বাংলাদেশ। বাংলাদেশের ম্যাপে দেখা যাচ্ছে এ চিত্র। বলছি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে গণহত্যা দিবস পালনের কথা।সারাদেশের মতো টাঙ্গাইলের মির্জাপুরেও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে গণহত্যা দিবস পালন করেছে সর্বসাধারণ। ইতিহাসের স্মৃতিতে এক ভয়াল, করুণ কালো রাত ছিলো ‘১৯৭১’এর এই ২৫মার্চ। তাই দিবসটিকে ঘিরে যথাযথ মর্যাদায় মির্জাপুরেও পালন করা হয়েছে এ গণহত্যা দিবস।গণহত্যা দিবস উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে উপস্থিত থেকে বক্তব্য করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহমুদ, পৌর মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এস এম মোজাহিদুল ইসলাম মনির প্রমুখ।গণহত্যা দিবসে মির্জাপুর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক এক ভিন্ন আয়োজন করা হয়। উপজেলা চত্বরের সামনে সন্ধ্যায় প্রদীপ জ্বালানো হয়। এতে অংশ নেয় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মজীবী, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, মির্জাপুর শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পী, মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিস সদস্য, মির্জাপুর রোভার স্কাউটসহ সর্বস্তরের মানুষ।তারপর শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান, নাচ, কবিতা আবৃত্তি করা হয়।
সর্বপ্রথম জাতীয় সংগীত দিয়ে শুরু করা হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মূলকার্যক্রম। জাতীয় সংগীত গাওয়ার পর বীর শহীদদেরকে স্নরণে (১) মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
এরপর মুক্তিযুদ্ধের গান, জারিসারি, কবিতা ও নৃত্য পরিবেশন করেন শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীরা।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

মির্জাপুরে গণহত্যা দিবস পালিত

আপডেট সময় : ০৪:৪৪:২২ অপরাহ্ন, রবিবার, ২৫ মার্চ ২০১৮

 

মো: আবুবকর সিকদার মির্জাপুর প্রতিনিধিঃ এ যেনো বাংলাদেশ। বাংলাদেশের ম্যাপে দেখা যাচ্ছে এ চিত্র। বলছি টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে গণহত্যা দিবস পালনের কথা।সারাদেশের মতো টাঙ্গাইলের মির্জাপুরেও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে গণহত্যা দিবস পালন করেছে সর্বসাধারণ। ইতিহাসের স্মৃতিতে এক ভয়াল, করুণ কালো রাত ছিলো ‘১৯৭১’এর এই ২৫মার্চ। তাই দিবসটিকে ঘিরে যথাযথ মর্যাদায় মির্জাপুরেও পালন করা হয়েছে এ গণহত্যা দিবস।গণহত্যা দিবস উপলক্ষে উপজেলা পরিষদ মিলনায়তনে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসারের সভাপতিত্বে উপস্থিত থেকে বক্তব্য করেন, উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মীর শরীফ মাহমুদ, পৌর মেয়র সাহাদৎ হোসেন সুমন, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান এস এম মোজাহিদুল ইসলাম মনির প্রমুখ।গণহত্যা দিবসে মির্জাপুর উপজেলা প্রশাসন কর্তৃক এক ভিন্ন আয়োজন করা হয়। উপজেলা চত্বরের সামনে সন্ধ্যায় প্রদীপ জ্বালানো হয়। এতে অংশ নেয় উপজেলা প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মজীবী, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী, মির্জাপুর শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পী, মির্জাপুর ফায়ার সার্ভিস সদস্য, মির্জাপুর রোভার স্কাউটসহ সর্বস্তরের মানুষ।তারপর শুরু হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে গান, নাচ, কবিতা আবৃত্তি করা হয়।
সর্বপ্রথম জাতীয় সংগীত দিয়ে শুরু করা হয় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের মূলকার্যক্রম। জাতীয় সংগীত গাওয়ার পর বীর শহীদদেরকে স্নরণে (১) মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।
এরপর মুক্তিযুদ্ধের গান, জারিসারি, কবিতা ও নৃত্য পরিবেশন করেন শিল্পকলা একাডেমীর শিল্পীরা।