ঢাকা ০১:০৩ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভূঞাপুরে ভাইয়ের তৈরি যৌনবর্ধক ঔষুধ খেয়ে আপন ভাইসহ দুইজনের মৃত্যু

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:৪৯:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ মার্চ ২০১৮ ১৮ বার পড়া হয়েছে

বৃহস্পতিবার ভোরে ভাইয়ের তৈরি যৌনবর্ধক ঔষুধ (হালুয়া) খেয়ে আপন ভাইসহ মারা গেছেন দুইজন। এতে গুরুতর অসুস্থ্য হয়েছেন আরো দুইজন। নিহতরা সাভারের আশুলিয়া এলাকায় বিভিন্ন পোশাক কারখানায় চাকুরী করতেন।

এঘটনায় গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে সাভারের এনাম মেডিকেল হাসপাতালে দুইজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহত দুইজন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ধুবলিয়া গ্রামের সুজাত আলীর ছেলে মোতালেব (২৮) ও একই গ্রামের জয়নাল শেখের ছেলে জিল্লুর শেখ। নিহত দুজনের লাশ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

প্রতিবেশি ও নিহতের স্বজনরা জানায়, নিহত মোতালেব ও জিল্লুর, শামীম, ফরিদ উদ্দিন ও নাসির সাভারের আশুলিয়া এলাকায় পোশাক কারখানায় চাকুরী করতো এবং আশুলিয়ার রপ্তানী এলাকার হাসেম প্লাজার পিছনে একটি বাড়িতে বসবাস করতো। বুধবার রাতে নিহত মোতালেবের ভাই নাসির বিভিন্ন জিনিষ মিশিয়ে যৌনবর্ধক হালুয়া তৈরি করে। পরে সেই হালুয়া খেয়ে ৪জন গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।

এসময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব ও জিল্লুর মারা যায়।

এঘটনায় হালুয়া সেবনকারী শামীম ও ফরিদ উদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উপজেলার ফলদা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মজিবর রহমান জানান, বড় ভাই নাসিরের মাধ্যমে শামীম ও প্রতিবেশি জিল্লুর আশুলিয়ায় পোশাক কারখানায় চাকুরী নেয়। তারা একই বাসায় ভাড়া থাকতো। বুধবার রাতে নাসির হালুয়া তৈরি করে কাজে চলে যায়। পরে সেই তৈরি করা হালুয়া মোতালেব, জিল্লুর, ফরিদ ও শামীম খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব ও জিল্লুর মারা যায়।গ্রেফতার করি। এ বিষয়ে তার নামে  মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ভূঞাপুরে ভাইয়ের তৈরি যৌনবর্ধক ঔষুধ খেয়ে আপন ভাইসহ দুইজনের মৃত্যু

আপডেট সময় : ১১:৪৯:১৪ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১৫ মার্চ ২০১৮

বৃহস্পতিবার ভোরে ভাইয়ের তৈরি যৌনবর্ধক ঔষুধ (হালুয়া) খেয়ে আপন ভাইসহ মারা গেছেন দুইজন। এতে গুরুতর অসুস্থ্য হয়েছেন আরো দুইজন। নিহতরা সাভারের আশুলিয়া এলাকায় বিভিন্ন পোশাক কারখানায় চাকুরী করতেন।

এঘটনায় গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে সাভারের এনাম মেডিকেল হাসপাতালে দুইজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহত দুইজন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ধুবলিয়া গ্রামের সুজাত আলীর ছেলে মোতালেব (২৮) ও একই গ্রামের জয়নাল শেখের ছেলে জিল্লুর শেখ। নিহত দুজনের লাশ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

প্রতিবেশি ও নিহতের স্বজনরা জানায়, নিহত মোতালেব ও জিল্লুর, শামীম, ফরিদ উদ্দিন ও নাসির সাভারের আশুলিয়া এলাকায় পোশাক কারখানায় চাকুরী করতো এবং আশুলিয়ার রপ্তানী এলাকার হাসেম প্লাজার পিছনে একটি বাড়িতে বসবাস করতো। বুধবার রাতে নিহত মোতালেবের ভাই নাসির বিভিন্ন জিনিষ মিশিয়ে যৌনবর্ধক হালুয়া তৈরি করে। পরে সেই হালুয়া খেয়ে ৪জন গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।

এসময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব ও জিল্লুর মারা যায়।

এঘটনায় হালুয়া সেবনকারী শামীম ও ফরিদ উদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উপজেলার ফলদা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মজিবর রহমান জানান, বড় ভাই নাসিরের মাধ্যমে শামীম ও প্রতিবেশি জিল্লুর আশুলিয়ায় পোশাক কারখানায় চাকুরী নেয়। তারা একই বাসায় ভাড়া থাকতো। বুধবার রাতে নাসির হালুয়া তৈরি করে কাজে চলে যায়। পরে সেই তৈরি করা হালুয়া মোতালেব, জিল্লুর, ফরিদ ও শামীম খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব ও জিল্লুর মারা যায়।গ্রেফতার করি। এ বিষয়ে তার নামে  মামলা দায়ের করা হয়েছে।