ঢাকা ০৮:২৫ পূর্বাহ্ন, মঙ্গলবার, ১৮ জুন ২০২৪, ৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বড়মনিরকে সাময়িক অব্যাহতি, চুড়ান্ত অব্যাহতির সুপারিশ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:২৯:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪ ৩১ বার পড়া হয়েছে

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক: ধর্ষণ মামলায় জড়িয়ে পরায় টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বড়মনিরকে দল থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। চুড়ান্ত অব্যাহতির জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদকের (ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) নিকট সুপারিশ করা হয়েছে।

গত ৭ এপ্রিল টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই অব্যাহতি দেয়া হয়।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বড়মনির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে রাজধানীর তুরাগ থানায় মামলা হয়েছে। সেই বিষয়ে গত ২৯ মার্চ থেকে ধারাবাহিকভাবে দেশের বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এই অনৈতিক কর্মকান্ডের ফলে দলীয় ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এজন্য টাঙ্গাইলের সাধারণ জনগণ দলের প্রতি বিরূপ ধারণা পোষণ করছে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

চিঠিতে আরো উল্লেখ করা হয় যে, টাঙ্গাইল জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের পরামর্শ ও নির্দেশক্রমেই বড়মনিরকে দল থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

চিঠিটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম (এমপি)’র (ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) এর বরাবর পাঠানো হয়েছে। এই চিঠিতে বড়মনিকে চুড়ান্ত অব্যাহতির জন্য সুপারিশ করে স্বাক্ষর করেন টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল হক আলমগীর ও সাধারণ সম্পাদক এমএ রৌফ।

বড়মনিরকে সহ-সভাপতির পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি ও চুড়ান্ত অব্যাহতির চিঠির সত্যতা স্বীকার করেন টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র সিরাজুল হক আলমগীর।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বড়মনিরকে সাময়িক অব্যাহতি, চুড়ান্ত অব্যাহতির সুপারিশ

আপডেট সময় : ১২:২৯:৩২ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক: ধর্ষণ মামলায় জড়িয়ে পরায় টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বড়মনিরকে দল থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে। চুড়ান্ত অব্যাহতির জন্য বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদকের (ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) নিকট সুপারিশ করা হয়েছে।

গত ৭ এপ্রিল টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কর্তৃক স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে এই অব্যাহতি দেয়া হয়।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি গোলাম কিবরিয়া বড়মনির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগে রাজধানীর তুরাগ থানায় মামলা হয়েছে। সেই বিষয়ে গত ২৯ মার্চ থেকে ধারাবাহিকভাবে দেশের বিভিন্ন ইলেকট্রনিক্স ও প্রিন্ট মিডিয়ায় প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। এই অনৈতিক কর্মকান্ডের ফলে দলীয় ভাবমূর্তি মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে। এজন্য টাঙ্গাইলের সাধারণ জনগণ দলের প্রতি বিরূপ ধারণা পোষণ করছে বলেও চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

চিঠিতে আরো উল্লেখ করা হয় যে, টাঙ্গাইল জেলার দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের পরামর্শ ও নির্দেশক্রমেই বড়মনিরকে দল থেকে সাময়িক অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

চিঠিটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম (এমপি)’র (ঢাকা বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) এর বরাবর পাঠানো হয়েছে। এই চিঠিতে বড়মনিকে চুড়ান্ত অব্যাহতির জন্য সুপারিশ করে স্বাক্ষর করেন টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল হক আলমগীর ও সাধারণ সম্পাদক এমএ রৌফ।

বড়মনিরকে সহ-সভাপতির পদ থেকে সাময়িক অব্যাহতি ও চুড়ান্ত অব্যাহতির চিঠির সত্যতা স্বীকার করেন টাঙ্গাইল শহর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও টাঙ্গাইল পৌরসভার মেয়র সিরাজুল হক আলমগীর।