ঢাকা ০৯:৪৬ অপরাহ্ন, মঙ্গলবার, ০৯ জুলাই ২০২৪, ২৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন এদেশের স্বাধীনতা ও অর্থনৈতিক মুক্তি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৫৮:১৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৮ ১৪ বার পড়া হয়েছে

পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন এদেশের স্বাধীনতা ও অর্থনৈতিক মুক্তি।আমাদের দেশে গণতন্ত্র সৃষ্টি হয়েছে ১৯৭৩ সালে। কিন্তু আজও আমাদের গণতন্ত্র বিকশিত হয়নি। আগে গণতন্ত্র পরে সুশাসন।তিনি আরও বলেন, বিএনপি নির্বাচনে না এসে নির্বিচারে মানুষ হত্যায় লিপ্ত থাকে। বিএনপি কোন সময় দেশের জন্য কাজ করেনি। তারা শুধু নিজেদের পকেট ভাড়ি করার জন্য কাজ করে।বৃহস্পতিবার বিকেলে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গার জিতেন্দ্র বালা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নতুন তিনতলা ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে দিনরাত পরিশ্রম করে চলেছেন।  স্বাধীনতা পেলেও আজও আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি আসেনি।  আমরা চাই সবাইকে নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে।দেশ বরেণ্য অর্থনীতিবিদ ও জিতেন্দ্র বালা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় প্রমুখ।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন এদেশের স্বাধীনতা ও অর্থনৈতিক মুক্তি

আপডেট সময় : ০৯:৫৮:১৪ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৩ এপ্রিল ২০১৮

পরিকল্পনা মন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল বলেছেন, বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন এদেশের স্বাধীনতা ও অর্থনৈতিক মুক্তি।আমাদের দেশে গণতন্ত্র সৃষ্টি হয়েছে ১৯৭৩ সালে। কিন্তু আজও আমাদের গণতন্ত্র বিকশিত হয়নি। আগে গণতন্ত্র পরে সুশাসন।তিনি আরও বলেন, বিএনপি নির্বাচনে না এসে নির্বিচারে মানুষ হত্যায় লিপ্ত থাকে। বিএনপি কোন সময় দেশের জন্য কাজ করেনি। তারা শুধু নিজেদের পকেট ভাড়ি করার জন্য কাজ করে।বৃহস্পতিবার বিকেলে টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার এলেঙ্গার জিতেন্দ্র বালা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের নতুন তিনতলা ভবনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।মন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত কাজ শেষ করতে দিনরাত পরিশ্রম করে চলেছেন।  স্বাধীনতা পেলেও আজও আমাদের অর্থনৈতিক মুক্তি আসেনি।  আমরা চাই সবাইকে নিয়ে দেশকে এগিয়ে নিতে।দেশ বরেণ্য অর্থনীতিবিদ ও জিতেন্দ্র বালা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি ড. দেবপ্রিয় ভট্টাচার্যের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য হাসান ইমাম খান সোহেল হাজারী, টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন, পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় প্রমুখ।