ঢাকা ০২:৫১ অপরাহ্ন, রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ৩০ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রেমের ফাঁদে ফেলে অতঃপর… স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ!

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:১১:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ মার্চ ২০১৮ ১৮ বার পড়া হয়েছে

ঢাকার সাভারে এক স্কুলছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে একাধিকবার ধর্ষণ এবং এরপর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এমন ঘটনায় বিয়ে ও স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে অভিযুক্ত ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে সোমবার (৫ মার্চ) সাভার মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেন ভুক্তভোগী ওই স্কুলছাত্রী।

এ মামলা দায়েরের পর পুলিশ ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ভিকটিম স্কুল ছাত্রীর পরিবার ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের স্বীকার ওই স্কুলছাত্রী সাভার পৌর এলাকার বাড্ডা ভাটপাড়া মহল্লার একটি স্কুলে ৮ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। আর একই ক্লাসের ছাত্র সহপাঠী ইমরানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। এই সুবাদে একপর্যায়ে ইমরান ওই স্কুলছাত্রীকে কৌশলে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ৭ মাস যাবত ওই ছাত্রীকে একটি ভাড়া বাসায় রেখে ধর্ষণ করে আসছিল ইমরান। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে স্ত্রীর স্বীকৃতি প্রদানের দাবি জানায়। কিন্তু ইমরান ও তার পরিবারের সদস্যরা রাজি না হওয়ায় সোমবার (৫ মার্চ) সকালে ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, মামলা দায়ের পর থেকে অভিযুক্ত ইমরান ও তার পরিবারের সদস্যরা গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে।

সাভার মডেল থানার এসআই সৌমেন মিত্র জানান, ধর্ষণের স্বীকার স্কুলছাত্রীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, অভিযুক্ত ইমরানকে আটক করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্রেমের ফাঁদে ফেলে অতঃপর… স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ!

আপডেট সময় : ১২:১১:১৪ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ মার্চ ২০১৮

ঢাকার সাভারে এক স্কুলছাত্রীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে একাধিকবার ধর্ষণ এবং এরপর অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার ঘটনায় মামলা দায়ের করা হয়েছে। এমন ঘটনায় বিয়ে ও স্ত্রীর স্বীকৃতি দাবিতে অভিযুক্ত ওই ছাত্রের বিরুদ্ধে সোমবার (৫ মার্চ) সাভার মডেল থানায় মামলাটি দায়ের করেন ভুক্তভোগী ওই স্কুলছাত্রী।

এ মামলা দায়েরের পর পুলিশ ওই স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

ভিকটিম স্কুল ছাত্রীর পরিবার ও থানা পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ধর্ষণের স্বীকার ওই স্কুলছাত্রী সাভার পৌর এলাকার বাড্ডা ভাটপাড়া মহল্লার একটি স্কুলে ৮ম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। আর একই ক্লাসের ছাত্র সহপাঠী ইমরানের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে তার। এই সুবাদে একপর্যায়ে ইমরান ওই স্কুলছাত্রীকে কৌশলে একাধিকবার ধর্ষণ করে।

বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে গত ৭ মাস যাবত ওই ছাত্রীকে একটি ভাড়া বাসায় রেখে ধর্ষণ করে আসছিল ইমরান। এ ঘটনায় স্কুলছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়লে স্ত্রীর স্বীকৃতি প্রদানের দাবি জানায়। কিন্তু ইমরান ও তার পরিবারের সদস্যরা রাজি না হওয়ায় সোমবার (৫ মার্চ) সকালে ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী বাদী হয়ে সাভার মডেল থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

এদিকে, মামলা দায়ের পর থেকে অভিযুক্ত ইমরান ও তার পরিবারের সদস্যরা গা ঢাকা দিয়েছে বলে জানা গেছে।

সাভার মডেল থানার এসআই সৌমেন মিত্র জানান, ধর্ষণের স্বীকার স্কুলছাত্রীকে স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

তিনি আরো বলেন, অভিযুক্ত ইমরানকে আটক করতে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে।