ঢাকা ১১:১৭ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ২৫ মে ২০২৪, ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

প্রেমিক খুন, তিনজনের প্রেম

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১২:০৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ মার্চ ২০১৮ ১৭ বার পড়া হয়েছে

কলেজ ছাত্র রওনক হোসেনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক চলছিলো মাইশার সাথে। হঠাৎই সে সম্পর্কের ইতি টনে রওনক। নতুন সম্পর্কে জড়ান তুহুর সাথে। কিন্তু তুহু পছন্দ করত অন্য আরেক জনকে।

আর এই ঘটনার জেরেই বাধে ঝগড়া। তুহুর প্রেমিক সুযোগ খুঁজতে থাকে প্রতিশোধের। আর একসময় সুযোগও চলে আসে তার হাতে। ওই ছেলে বেছে নেয় হোলি উৎসবকে।

ঘটনার দিন মাইশাকে ব্যবহার করে রওনককে হোলি উৎসবে আসতে বাধ্য করে ওই ছেলে।

আর উৎসবে আসার পর ২০-৩০ জন ছেলে রওনককে ডেকে একপাশে নিয়ে মারধর করে। আর এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের রওনক এর অবস্থা আশংকাজনক হয়ে দাঁড়ায়। পরে তাকে ন্যাশনাল হাসপাতাল হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে মঙ্গলবার (৬ মার্চ) দুপুর সোয়া ১টার দিকে মারা যায় রওনক।

এ ঘটনায় ছুরিকাঘাতকারী রিয়াদ আলম ফারহানসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলো, মোহাম্মদ ফাহিত আহমেদ আব্রু, মো. ইয়াসিন আলী, মো. আল আমিন ওরফে ফারাবী খান, মোসা. লিজা আক্তার ওরফে মাইশা আলম।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিড়িয়া এন্ড কমিউনিকেশন্স বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান লালবাগ জোনের উপ কমিশনার

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

প্রেমিক খুন, তিনজনের প্রেম

আপডেট সময় : ১২:০৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ৭ মার্চ ২০১৮

কলেজ ছাত্র রওনক হোসেনের সাথে প্রেমের সম্পর্ক চলছিলো মাইশার সাথে। হঠাৎই সে সম্পর্কের ইতি টনে রওনক। নতুন সম্পর্কে জড়ান তুহুর সাথে। কিন্তু তুহু পছন্দ করত অন্য আরেক জনকে।

আর এই ঘটনার জেরেই বাধে ঝগড়া। তুহুর প্রেমিক সুযোগ খুঁজতে থাকে প্রতিশোধের। আর একসময় সুযোগও চলে আসে তার হাতে। ওই ছেলে বেছে নেয় হোলি উৎসবকে।

ঘটনার দিন মাইশাকে ব্যবহার করে রওনককে হোলি উৎসবে আসতে বাধ্য করে ওই ছেলে।

আর উৎসবে আসার পর ২০-৩০ জন ছেলে রওনককে ডেকে একপাশে নিয়ে মারধর করে। আর এতে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণের রওনক এর অবস্থা আশংকাজনক হয়ে দাঁড়ায়। পরে তাকে ন্যাশনাল হাসপাতাল হয়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হলে মঙ্গলবার (৬ মার্চ) দুপুর সোয়া ১টার দিকে মারা যায় রওনক।

এ ঘটনায় ছুরিকাঘাতকারী রিয়াদ আলম ফারহানসহ পাঁচজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। গ্রেফতারকৃত অন্যরা হলো, মোহাম্মদ ফাহিত আহমেদ আব্রু, মো. ইয়াসিন আলী, মো. আল আমিন ওরফে ফারাবী খান, মোসা. লিজা আক্তার ওরফে মাইশা আলম।

মঙ্গলবার বেলা ১১টায় ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) মিড়িয়া এন্ড কমিউনিকেশন্স বিভাগের সম্মেলন কক্ষে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান লালবাগ জোনের উপ কমিশনার