ঢাকা ০৩:০২ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডিসকাউন্টে প্লেনের টিকেট বিক্রির নামে অভিনব প্রতারণা।

এস এম সজল/ব্যতিক্রম নিউজ।
  • আপডেট সময় : ১১:২২:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪ ১১২ বার পড়া হয়েছে

ডিসকাউন্টে প্লেনের টিকেট বিক্রির নামে অভিনব প্রতারণাকারী প্রবাসী লিটন মিয়া আজ গোয়েন্দাদের জালে ধরা পড়েছে। কুয়েত প্রবাসী ছিলেন তিনি একসময় দেশে ফিরে ভিসা প্রসেসিংয়ের কাজ শুরু করেন তারই ব্যবস্থাপনায় একজন বিদেশ যে আর ফেরেননি এমনকি আর পাওনা টাকা পরিশোধ করেনি এই ঘটনায় প্রতিশোধ পরায়ণ হয়ে নিজেই নেমে যান প্রতারণার কাজে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডিসকাউন্টে বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের টিকেট বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে শুরু করেন প্রতারণার কাজ।

কম দামে টিকেট বিক্রির লোভ দেখিয়ে মূলত প্রবাসীদের টার্গেট করতেন লিটন। অপরদিকে সরবরাহ করতেন জালটিকেট। এ প্রতারণায় তার মাসিক আয় ছিল প্রায় ৩০লক্ষ টাকা।

এই ঘটনায় লিটনসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। বাকিরা হলেন বিল্লাল হোসেন ও রিয়াদ শেখ এই সময় তাদের কাছ থেকে দুটি মোবাইল ফোন একটি কম্পিউটার চেক বই সহ ডেবিট কার্ড জব্দ করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ফেসবুকে সানফ্লাওয়ার ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি পেজ খুলে ১৫ শতাংশ ডিসকাউন্টে টিকেট বিক্রি র কথা বলে পোস্ট দেন লিটন। চটকদার বিজ্ঞাপন দেখে বিদেশে কর্মরত শ্রমজীবী লোকজন আকৃষ্ট হয়ে তার সাথে যোগাযোগ করেন তাদের মধ্য থেকে টার্গেট করে বাছাইকৃত ব্যক্তিকে ডিসকাউন্টের জাল  টিকিট দিতেন লিটন। কাস্টমারদের বিশ্বস্ততা বাড়ানোর জন্য ব্যাংক একাউন্টে টাকা দিতে বলবেন। টাকা পাওয়ার পর ব্লক করে দিতেন ক্রেতাদের নাম্বার এভাবেই চলছিল তার প্রতারণা।

এ ব্যাপারে ডিবি প্রধান মোঃ হারুন বলেন ,আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন প্যাকেজের অফার দেয়া হচ্ছে । সবাইকে আরো বেশি সচেতন হয়ে যাচাই-বাছাই করে টাকা দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

ডিসকাউন্টে প্লেনের টিকেট বিক্রির নামে অভিনব প্রতারণা।

আপডেট সময় : ১১:২২:০৩ পূর্বাহ্ন, শুক্রবার, ১৫ মার্চ ২০২৪

ডিসকাউন্টে প্লেনের টিকেট বিক্রির নামে অভিনব প্রতারণাকারী প্রবাসী লিটন মিয়া আজ গোয়েন্দাদের জালে ধরা পড়েছে। কুয়েত প্রবাসী ছিলেন তিনি একসময় দেশে ফিরে ভিসা প্রসেসিংয়ের কাজ শুরু করেন তারই ব্যবস্থাপনায় একজন বিদেশ যে আর ফেরেননি এমনকি আর পাওনা টাকা পরিশোধ করেনি এই ঘটনায় প্রতিশোধ পরায়ণ হয়ে নিজেই নেমে যান প্রতারণার কাজে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ডিসকাউন্টে বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের টিকেট বিক্রির বিজ্ঞাপন দিয়ে শুরু করেন প্রতারণার কাজ।

কম দামে টিকেট বিক্রির লোভ দেখিয়ে মূলত প্রবাসীদের টার্গেট করতেন লিটন। অপরদিকে সরবরাহ করতেন জালটিকেট। এ প্রতারণায় তার মাসিক আয় ছিল প্রায় ৩০লক্ষ টাকা।

এই ঘটনায় লিটনসহ তিনজনকে গ্রেফতার করেছে মহানগর গোয়েন্দা পুলিশ। বাকিরা হলেন বিল্লাল হোসেন ও রিয়াদ শেখ এই সময় তাদের কাছ থেকে দুটি মোবাইল ফোন একটি কম্পিউটার চেক বই সহ ডেবিট কার্ড জব্দ করা হয়েছে।

প্রাথমিকভাবে ফেসবুকে সানফ্লাওয়ার ট্রাভেলস ইন্টারন্যাশনাল নামে একটি পেজ খুলে ১৫ শতাংশ ডিসকাউন্টে টিকেট বিক্রি র কথা বলে পোস্ট দেন লিটন। চটকদার বিজ্ঞাপন দেখে বিদেশে কর্মরত শ্রমজীবী লোকজন আকৃষ্ট হয়ে তার সাথে যোগাযোগ করেন তাদের মধ্য থেকে টার্গেট করে বাছাইকৃত ব্যক্তিকে ডিসকাউন্টের জাল  টিকিট দিতেন লিটন। কাস্টমারদের বিশ্বস্ততা বাড়ানোর জন্য ব্যাংক একাউন্টে টাকা দিতে বলবেন। টাকা পাওয়ার পর ব্লক করে দিতেন ক্রেতাদের নাম্বার এভাবেই চলছিল তার প্রতারণা।

এ ব্যাপারে ডিবি প্রধান মোঃ হারুন বলেন ,আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বিভিন্ন প্যাকেজের অফার দেয়া হচ্ছে । সবাইকে আরো বেশি সচেতন হয়ে যাচাই-বাছাই করে টাকা দেয়ার আহ্বান জানান তিনি।