ঢাকা ০৭:১৯ অপরাহ্ন, রবিবার, ০৭ জুলাই ২০২৪, ২৩ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপনঃ

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৫:৪৮:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ মার্চ ২০১৮ ১৫ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইলে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।
সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু করা হয়। সকালে টাঙ্গাইল শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানের শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, প্রেসক্লাব, জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা বিএনপি, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ, বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী’সহ বিভিণ্ন শ্রেনীপেশার মানুষ পুস্পস্তবকের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন।

পরে সকাল ৮টায় টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে সম্মিলিতভাবে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে বেলুন ও পায়রা উরিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। এরপর মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ ও শরীর চর্চা প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন ও পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ করেন।
পরে অংশ গ্রহণকারীদের পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ জোয়াহেরুল ইসলাম, টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন (এমপি), সরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য মনোয়ারা বেগম (এমপি), অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ নেছার উদ্দিন জুয়েল, টাঙ্গাইল জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কামান্ডার খন্দকার জহুরুল হক ডিপটি, ফজলুল হক বীরপ্রতিক, টাঙ্গাইল সতর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সহ অন্যান্য সুধীজন।এ ছাড়া অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে মিলাদ, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেয়া হয়।জেলা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় শিল্পকলা একাডেমীতে দিনব্যাপী মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাঙ্গাইলে যথাযোগ্য মর্যাদায় স্বাধীনতা দিবস উদযাপনঃ

আপডেট সময় : ০৫:৪৮:৫৮ অপরাহ্ন, সোমবার, ২৬ মার্চ ২০১৮

টাঙ্গাইলে যথাযোগ্য মর্যাদায় বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্যে দিয়ে মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস উদযাপন করা হয়েছে।
সূর্যোদয়ের সাথে সাথে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসের কর্মসূচি শুরু করা হয়। সকালে টাঙ্গাইল শহীদ স্মৃতি পৌর উদ্যানের শহীদ স্মৃতিস্তম্ভে জেলা প্রশাসন, পুলিশ প্রশাসন, প্রেসক্লাব, জেলা আওয়ামী লীগ, জেলা বিএনপি, জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, বাংলাদেশ মুক্তিযোদ্ধা সংসদের অঙ্গ সংগঠন বাংলাদেশ আওয়ামী মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্মলীগ, বিভিন্ন রাজনৈতিক-সামাজিক, সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থী’সহ বিভিণ্ন শ্রেনীপেশার মানুষ পুস্পস্তবকের মাধ্যমে শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ করেন।

পরে সকাল ৮টায় টাঙ্গাইল স্টেডিয়ামে সম্মিলিতভাবে জাতীয় সঙ্গীত গেয়ে বেলুন ও পায়রা উরিয়ে অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করা হয়। এরপর মনোজ্ঞ কুচকাওয়াজ ও শরীর চর্চা প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত হয়।টাঙ্গাইলের জেলা প্রশাসক খান মো. নুরুল আমিন ও পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় কুচকাওয়াজে সালাম গ্রহণ করেন।
পরে অংশ গ্রহণকারীদের পুরষ্কার বিতরণ করা হয়।এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলুর রহমান খান ফারুক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ জোয়াহেরুল ইসলাম, টাঙ্গাইল-৫ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য ছানোয়ার হোসেন (এমপি), সরক্ষিত মহিলা আসনের সংসদ সদস্য মনোয়ারা বেগম (এমপি), অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মুহাম্মদ নেছার উদ্দিন জুয়েল, টাঙ্গাইল জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের সাবেক কামান্ডার খন্দকার জহুরুল হক ডিপটি, ফজলুল হক বীরপ্রতিক, টাঙ্গাইল সতর উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা সহ অন্যান্য সুধীজন।এ ছাড়া অন্যান্য কর্মসূচির মধ্যে জেলা শিল্পকলা একাডেমীতে মিলাদ, মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতিচারণ ও বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা দেয়া হয়।জেলা পুলিশ প্রশাসনের উদ্যোগে স্থানীয় শিল্পকলা একাডেমীতে দিনব্যাপী মুক্তিযোদ্ধাদের বিনামুল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান করা হয়।