ঢাকা ০৪:৫৯ অপরাহ্ন, শুক্রবার, ১২ জুলাই ২০২৪, ২৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলে ভিপি আবু সাঈদ রুবেল হত্যাচেষ্টা মামলায় এমপি রানার জামিন মঞ্জুর

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১০:৫৮:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ মে ২০১৮ ২১ বার পড়া হয়েছে

ঘাটাইল জিবিজি কলেজ ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি (ভিপি) ছাত্রলীগ নেতা আবু সাঈদ রুবেলকে হত্যাচেষ্টা মামলায় টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানার জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।১০ মে বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘাটাইল আমলী আদালতের বিচারক জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম গোলাম কিবরিয়া তার জামিন মঞ্জুর করেন।

টাঙ্গাইল গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) আশোক কুমার সিংহ জানান, সকাল সাড়ে ১১টায় এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে টাঙ্গাইল আদালতে আনা হয়। এর পর ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শামছুল ইসলামের গত ৩ মে এই মামলায় রানাকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদনের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার আদালত এমপি রানাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। এরপর এমপি রানা আইনজীবির মাধ্যমে জামিন আবেদন করলে বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৯ নভেম্বর রাতে একদল সন্ত্রাসী আবু সাঈদকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ হামলায় আবু সাঈদ পঙ্গু হয়ে যান। এ মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া আসামী আব্দুল জব্বার বাবু ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর আদালতে জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে আব্দুল জব্বার জানান, এমপি রানা কারাগারে থেকে আবু সাঈদকে কিছু করার নির্দেশ দেন। তার নির্দেশ মতোই সাঈদকে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করা হয়।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাঙ্গাইলে ভিপি আবু সাঈদ রুবেল হত্যাচেষ্টা মামলায় এমপি রানার জামিন মঞ্জুর

আপডেট সময় : ১০:৫৮:৫৮ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ১০ মে ২০১৮

ঘাটাইল জিবিজি কলেজ ছাত্র সংসদের সহ-সভাপতি (ভিপি) ছাত্রলীগ নেতা আবু সাঈদ রুবেলকে হত্যাচেষ্টা মামলায় টাঙ্গাইল-৩ (ঘাটাইল) আসনের সংসদ সদস্য আমানুর রহমান খান রানার জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।১০ মে বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘাটাইল আমলী আদালতের বিচারক জ্যেষ্ঠ বিচারিক হাকিম গোলাম কিবরিয়া তার জামিন মঞ্জুর করেন।

টাঙ্গাইল গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার্স ইনচার্জ (ওসি) আশোক কুমার সিংহ জানান, সকাল সাড়ে ১১টায় এমপি আমানুর রহমান খান রানাকে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগার থেকে টাঙ্গাইল আদালতে আনা হয়। এর পর ওই মামলার তদন্ত কর্মকর্তা গোয়েন্দা পুলিশের উপপরিদর্শক (এসআই) শামছুল ইসলামের গত ৩ মে এই মামলায় রানাকে গ্রেফতার দেখানোর আবেদনের প্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার আদালত এমপি রানাকে গ্রেফতারের নির্দেশ দেন। এরপর এমপি রানা আইনজীবির মাধ্যমে জামিন আবেদন করলে বিচারক তার জামিন মঞ্জুর করেন।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৯ নভেম্বর রাতে একদল সন্ত্রাসী আবু সাঈদকে কুপিয়ে মারাত্মক আহত করে। এ হামলায় আবু সাঈদ পঙ্গু হয়ে যান। এ মামলায় জড়িত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়া আসামী আব্দুল জব্বার বাবু ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করে ২০১৬ সালের ২০ ডিসেম্বর আদালতে জবানবন্দি দেন। জবানবন্দিতে আব্দুল জব্বার জানান, এমপি রানা কারাগারে থেকে আবু সাঈদকে কিছু করার নির্দেশ দেন। তার নির্দেশ মতোই সাঈদকে হত্যার উদ্দেশ্যে আক্রমন করা হয়।