ঢাকা ০৭:৫৩ অপরাহ্ন, শনিবার, ০৬ জুলাই ২০২৪, ২২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুকুরের মুখ থেকে রক্ষা পেল ফেলে যাওয়া সদ্য ভুমিষ্ঠ শিশুটি

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১৮:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ এপ্রিল ২০১৮ ১৯ বার পড়া হয়েছে

গতকাল ৪ এপ্রিল বুধবার ভোরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুকুরের মুখ থেকে রক্ষা পায় ফেলে যাওয়া সদ্য ভুমিষ্ঠ এক শিশু। রক্তাক্ত শিশুটিকে টানা হেচড়া করতে দেখেন প্রাত ভ্রমনে আসা স্থানীয় বাসিন্দা হুমায়ূন মাষ্টার। পরে তিনি কুকুরটিকে তাড়িয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের কররা কাওয়ালজানী গ্রামে। বর্তমানে শিশুটি ওই গ্রামের বেনজির আহমেদের বাড়িতে সুস্থ ও নিরাপদ রয়েছে। এ ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় উৎসুক লোকজন শিশুটিকে দেখার জন্য ওই বাড়িতে ভীর জমাচ্ছেন। এ সময় অনেকে বলাবলি করছেন ‘রাখে আল্লাহ মারে কে’।

কররা কাওয়ালজানী গ্রামের বাসিন্দা মির্জাপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শারীরিক শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কে বা কারা রাতে সদ্য ভুমিষ্ঠ শিশুটিকে রাস্তার পাশে পলিথিনের ব্যাগে ফেলে রেখে যায়। শিশুটি বর্তমানে সুস্থ ও নিরাপদে রয়েছে জানিয়ে বলেন, বিষয়টি মির্জাপুর থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

মির্জাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন, ঘটনা সম্পর্কে জানতে পেরেছি। খোঁজ নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুকুরের মুখ থেকে রক্ষা পেল ফেলে যাওয়া সদ্য ভুমিষ্ঠ শিশুটি

আপডেট সময় : ০৯:১৮:৩০ পূর্বাহ্ন, বৃহস্পতিবার, ৫ এপ্রিল ২০১৮

গতকাল ৪ এপ্রিল বুধবার ভোরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে কুকুরের মুখ থেকে রক্ষা পায় ফেলে যাওয়া সদ্য ভুমিষ্ঠ এক শিশু। রক্তাক্ত শিশুটিকে টানা হেচড়া করতে দেখেন প্রাত ভ্রমনে আসা স্থানীয় বাসিন্দা হুমায়ূন মাষ্টার। পরে তিনি কুকুরটিকে তাড়িয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করেন।

ঘটনাটি ঘটেছে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর উপজেলার বানাইল ইউনিয়নের কররা কাওয়ালজানী গ্রামে। বর্তমানে শিশুটি ওই গ্রামের বেনজির আহমেদের বাড়িতে সুস্থ ও নিরাপদ রয়েছে। এ ঘটনা জানাজানি হলে স্থানীয় উৎসুক লোকজন শিশুটিকে দেখার জন্য ওই বাড়িতে ভীর জমাচ্ছেন। এ সময় অনেকে বলাবলি করছেন ‘রাখে আল্লাহ মারে কে’।

কররা কাওয়ালজানী গ্রামের বাসিন্দা মির্জাপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের শারীরিক শিক্ষক সাইফুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, কে বা কারা রাতে সদ্য ভুমিষ্ঠ শিশুটিকে রাস্তার পাশে পলিথিনের ব্যাগে ফেলে রেখে যায়। শিশুটি বর্তমানে সুস্থ ও নিরাপদে রয়েছে জানিয়ে বলেন, বিষয়টি মির্জাপুর থানা পুলিশকে জানানো হয়েছে।

মির্জাপুর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এ কে এম মিজানুল হক বলেন, ঘটনা সম্পর্কে জানতে পেরেছি। খোঁজ নিয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।