ঢাকা ০৪:০৭ অপরাহ্ন, শনিবার, ২২ জুন ২০২৪, ৮ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলের মির্জপুরে বিপুল পরিমান ফেনসিডিলসহ ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৩:১৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ মার্চ ২০১৮ ১৬ বার পড়া হয়েছে

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে  বিপুল পরিমান ফেনসিডিলসহ রাকিব ওরফে রাজিব মিয়া(২৭) নামে এক ভুয়া সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার পিতার নাম আলী আহসান খান, বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা বলে পুলিশকে জানিয়েছে। তার সহযোগি স্বপন মৃধাকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। তিনি দি বাংলাদেশ টুডের সাংবাদিক বলে পুলিশকে জানিয়েছে। তার ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটিও পুলিশ উদ্ধার করেছে। আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের  পাকুল্যা বাস স্টেশন এলাকা থেকে ঐ ভুয়া সাংবাদিককে ফেনসিডিল ও প্রাইভেটকারসহ গ্রেফতার করা হয়। আজ বুধবার বিকেলে জামুর্কি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী এজাজ খান চৌধুরী রুবেল জানান,ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসকের পাকুল্যা এলাকায় একটি প্রাইভেটকারে দি বাংলাদেশ টুডের স্টিকার লেখা কারটি রাস্তার পাশে দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাইভেটকারটির পিছনের ডালা খুলে বস্তা ভর্তি ফেনসিডিলের বোতল দেখতে পেয়ে রাকিবকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। রাকিব নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে আইডি কার্ড দেখান। তবে তিনি কোথাকার সাংবাদিক কার্ডে তা লেখা নেই। আইডি কার্ডের মধ্যে লেখা মিডিয়া রিপোর্টার। উদ্ধারকৃত ৭০৪ বোতল ফেনসিডিলের দাম প্রায় তিন লাখ টাকা বলে পুলিশ জানিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে রাকিব পুলিশকে জানিয়েছে, ফেনসিডিল নিয়ে তিনি ও তার সহযোগিরা ঢাকা থেকে মাওয়া যাচ্ছিল। পাকুল্যা এলাকায় এসে প্রাইভেটকারটি বিকল হলে তারা বিপাকে পরে। এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মিজানুল হক মিজান সাংবাদিকদের বলেন, গ্রেফতারকৃত রাকিব ভুয়া সাংবাদিক। সাংবাদিকের নাম ব্যবহার করে সে মাদক ও চোরাচালন করে আসছে। তিনি ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাঙ্গাইলের মির্জপুরে বিপুল পরিমান ফেনসিডিলসহ ভুয়া সাংবাদিক গ্রেফতার

আপডেট সময় : ০৩:১৮:৫৬ অপরাহ্ন, বুধবার, ২১ মার্চ ২০১৮

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে  বিপুল পরিমান ফেনসিডিলসহ রাকিব ওরফে রাজিব মিয়া(২৭) নামে এক ভুয়া সাংবাদিককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তার পিতার নাম আলী আহসান খান, বাড়ি চুয়াডাঙ্গা জেলার দর্শনা বলে পুলিশকে জানিয়েছে। তার সহযোগি স্বপন মৃধাকে পুলিশ গ্রেফতার করতে পারেনি। তিনি দি বাংলাদেশ টুডের সাংবাদিক বলে পুলিশকে জানিয়েছে। তার ব্যবহৃত প্রাইভেটকারটিও পুলিশ উদ্ধার করেছে। আজ বুধবার দুপুরে ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের  পাকুল্যা বাস স্টেশন এলাকা থেকে ঐ ভুয়া সাংবাদিককে ফেনসিডিল ও প্রাইভেটকারসহ গ্রেফতার করা হয়। আজ বুধবার বিকেলে জামুর্কি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আলী এজাজ খান চৌধুরী রুবেল জানান,ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসকের পাকুল্যা এলাকায় একটি প্রাইভেটকারে দি বাংলাদেশ টুডের স্টিকার লেখা কারটি রাস্তার পাশে দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে প্রাইভেটকারটির পিছনের ডালা খুলে বস্তা ভর্তি ফেনসিডিলের বোতল দেখতে পেয়ে রাকিবকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। রাকিব নিজেকে সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে আইডি কার্ড দেখান। তবে তিনি কোথাকার সাংবাদিক কার্ডে তা লেখা নেই। আইডি কার্ডের মধ্যে লেখা মিডিয়া রিপোর্টার। উদ্ধারকৃত ৭০৪ বোতল ফেনসিডিলের দাম প্রায় তিন লাখ টাকা বলে পুলিশ জানিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে রাকিব পুলিশকে জানিয়েছে, ফেনসিডিল নিয়ে তিনি ও তার সহযোগিরা ঢাকা থেকে মাওয়া যাচ্ছিল। পাকুল্যা এলাকায় এসে প্রাইভেটকারটি বিকল হলে তারা বিপাকে পরে। এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার অফিসার ইনচার্জ এ কে এম মিজানুল হক মিজান সাংবাদিকদের বলেন, গ্রেফতারকৃত রাকিব ভুয়া সাংবাদিক। সাংবাদিকের নাম ব্যবহার করে সে মাদক ও চোরাচালন করে আসছে। তিনি ও তার সহযোগিদের বিরুদ্ধে প্রচলিত আইনে মামলার প্রক্রিয়া চলছে।