ঢাকা ০৫:৩০ অপরাহ্ন, বুধবার, ১৯ জুন ২০২৪, ৫ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় নির্বাচনী সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় অজ্ঞাত দেড়শ জনকে আসামী করে মামলা

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:৩০:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩১ মার্চ ২০১৮ ২০ বার পড়া হয়েছে

 

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগড়দিঘী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনী সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহতের ঘটনায় ওই ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সালাউদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত ১৪০/১৫০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। বৃহস্পতিবার রাতে ঘাটাইল থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘাটাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহিউদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর বৃহস্পতিবার রাতে এই ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার ঘাটাইল উপজেলার সাগড়দিঘী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ছিলো। নির্বাচনের আগের দিন বুধবার দিবাগত রাতে সাগড়দিঘী ইউনিয়নের গুপ্ত বৃন্দাবন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পুলিশ ভোট কেন্দ্র পাহাড়া দিচ্ছিল। ভোর রাত চারটার সময় একদল দুষ্কৃতকারি অস্ত্র নিয়ে ভোট কেন্দ্র দখল করে ব্যালট বাক্স কেড়ে নিয়ে বাক্সে ব্যালট পেপার ভর্তি করতে থাকে। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসী তাদের বাধাঁ দেয়। পরে জালভোট প্রদানকারীদের সাথে স্থানীয়দের সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এসময় দুষ্কৃতকারীরা ফাঁকা গুলি ছুড়ে ভীতি প্রদর্শন করলে পুলিশও তাদের লক্ষ্য করে পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় আব্দুল মালেক মিয়া গুলিবিদ্ধ হলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন।

 

 

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলায় নির্বাচনী সংঘর্ষে একজন নিহতের ঘটনায় অজ্ঞাত দেড়শ জনকে আসামী করে মামলা

আপডেট সময় : ০৯:৩০:৫৩ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৩১ মার্চ ২০১৮

 

টাঙ্গাইলের ঘাটাইল উপজেলার সাগড়দিঘী ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে নির্বাচনী সংঘর্ষের সময় গুলিবিদ্ধ হয়ে একজন নিহতের ঘটনায় ওই ভোটকেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসার সালাউদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত ১৪০/১৫০ জনকে আসামী করে মামলা দায়ের করেছেন। বৃহস্পতিবার রাতে ঘাটাইল থানায় এই মামলা দায়ের করা হয়। শুক্রবার সন্ধ্যায় ঘাটাইল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মহিউদ্দিন এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর বৃহস্পতিবার রাতে এই ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে প্রধান করে তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার ঘাটাইল উপজেলার সাগড়দিঘী ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন ছিলো। নির্বাচনের আগের দিন বুধবার দিবাগত রাতে সাগড়দিঘী ইউনিয়নের গুপ্ত বৃন্দাবন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রে পুলিশ ভোট কেন্দ্র পাহাড়া দিচ্ছিল। ভোর রাত চারটার সময় একদল দুষ্কৃতকারি অস্ত্র নিয়ে ভোট কেন্দ্র দখল করে ব্যালট বাক্স কেড়ে নিয়ে বাক্সে ব্যালট পেপার ভর্তি করতে থাকে। এ সময় খবর পেয়ে পুলিশ ও এলাকাবাসী তাদের বাধাঁ দেয়। পরে জালভোট প্রদানকারীদের সাথে স্থানীয়দের সংঘর্ষের সৃষ্টি হয়। এসময় দুষ্কৃতকারীরা ফাঁকা গুলি ছুড়ে ভীতি প্রদর্শন করলে পুলিশও তাদের লক্ষ্য করে পাল্টা গুলি চালায়। এ সময় আব্দুল মালেক মিয়া গুলিবিদ্ধ হলে ঘটনাস্থলেই নিহত হন।