ঢাকা ০১:১৪ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ০৭ জুলাই ২০২৪, ২২ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে চাঞ্চল্যকর শফিকুল ইসলাম সলিড হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ১১:১৬:৩২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৭ এপ্রিল ২০১৮ ২২ বার পড়া হয়েছে

গতকাল ৬ এপ্রিল শুক্রবার সকালে দেলদুয়ার উপজেলার গাদতলা গ্রামের আলমগীর নামের জনৈক পীরের বাড়ি থেকে টাঙ্গাইলের কালিহাতীর চাঞ্চল্যকর শফিকুল ইসলাম সলিড হত্যার প্রধান আসামী ক্যাপস্টেনকে ১৪ মাস পর গ্রেফতার করেছে কালিহাতী থানা পুলিশ।

কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোশারফ হোসেন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেলদুয়ার থানার গাদতলা থেকে এ মামলার প্রধান আসামী ক্যাপস্টেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার অপর আসামী রায়হান জেলহাজতে রয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জানা যায়, গত ২০১৭ সালের ১০ জানুয়ারি শফিকুল ইসলাম সলিড তার নিজ গ্রাম বলদকুড়া থেকে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের ৭ দিন পর তার ভাই রমজান আলী বাদি হয়ে কালিহাতী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন। পরে ২২ এপ্রিল’১৭ আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন তিনি। মামলা তদন্তকালে কালিহাতী থানার এস আই সাইদুল ইসলাম ,সলিডের বন্ধু রায়হানকে গ্রেফতার করে। রায়হানের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে কালিহাতী থানা পুলিশ বাসাইল উপজেলার নোন্দা বিল থেকে নিহতের কংকাল উদ্ধার করে। দীর্ঘদিন এ মামলার আসামীরা পলাতক ছিল।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে চাঞ্চল্যকর শফিকুল ইসলাম সলিড হত্যা মামলার প্রধান আসামী গ্রেফতার

আপডেট সময় : ১১:১৬:৩২ পূর্বাহ্ন, শনিবার, ৭ এপ্রিল ২০১৮

গতকাল ৬ এপ্রিল শুক্রবার সকালে দেলদুয়ার উপজেলার গাদতলা গ্রামের আলমগীর নামের জনৈক পীরের বাড়ি থেকে টাঙ্গাইলের কালিহাতীর চাঞ্চল্যকর শফিকুল ইসলাম সলিড হত্যার প্রধান আসামী ক্যাপস্টেনকে ১৪ মাস পর গ্রেফতার করেছে কালিহাতী থানা পুলিশ।

কালিহাতী থানার অফিসার ইনচার্জ মীর মোশারফ হোসেন বলেন, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দেলদুয়ার থানার গাদতলা থেকে এ মামলার প্রধান আসামী ক্যাপস্টেনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। মামলার অপর আসামী রায়হান জেলহাজতে রয়েছে। অন্য আসামীদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

জানা যায়, গত ২০১৭ সালের ১০ জানুয়ারি শফিকুল ইসলাম সলিড তার নিজ গ্রাম বলদকুড়া থেকে নিখোঁজ হয়। নিখোঁজের ৭ দিন পর তার ভাই রমজান আলী বাদি হয়ে কালিহাতী থানায় একটি সাধারণ ডায়েরী দায়ের করেন। পরে ২২ এপ্রিল’১৭ আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন তিনি। মামলা তদন্তকালে কালিহাতী থানার এস আই সাইদুল ইসলাম ,সলিডের বন্ধু রায়হানকে গ্রেফতার করে। রায়হানের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দীতে কালিহাতী থানা পুলিশ বাসাইল উপজেলার নোন্দা বিল থেকে নিহতের কংকাল উদ্ধার করে। দীর্ঘদিন এ মামলার আসামীরা পলাতক ছিল।