ঢাকা ১২:০০ অপরাহ্ন, সোমবার, ০৮ জুলাই ২০২৪, ২৪ আষাঢ় ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টাংগাইল শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে যান চলাচলের দুই শিফট পদ্ধতি আজ থেকে কার্যকর

প্রতিনিধির নাম
  • আপডেট সময় : ০৯:১৭:৩৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১ এপ্রিল ২০১৮ ১৭ বার পড়া হয়েছে

চেতনা নিউজ ডেস্ক:টাংগাইল শহর,জেলার প্রাণকেন্দ্র এটি।জেলার সব গুরুত্বপূর্ণ অফিস-অাদালত,বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান সহ গুরুত্বপূর্ণ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শহরের মধ্যে বিদ্যমান। শহরের ভিতর প্রধান সড়ক ব্যতীত বেশ কয়েকটি প্বার্শ রাস্তা থাকলেও প্বার্শ রাস্তাগুলি সংস্কার করার কারনে শহরমুখী সকল যানবাহন চলাচলের একমাএ পথ হয়ে দাঁড়িয়েছে শহরের প্রধান সড়কটি।তাই প্রয়োজনের অধিক যানবাহন চলাচল করায় প্রায়শই বড় ধরনের যানজটের সৃষ্টি হয়।যার ফলে ভোগান্তিতে পড়েন জনসাধারণ। অর্থনৈতিক লোকসান ছাড়াও মানসিক ক্ষতির মুখে পড়েন প্রতিদিন শহরে যাতায়াত করা কয়েক লক্ষাধিক মানুষ।

এরই প্রতিকার হিসেবে টাংগাইল পৌরসভা এক ভিন্ন ধরনের উদ্দ্যোগ গ্রহণ করে।শহরের মধ্যে চলাচল করা ৪ হাজারের অধিক অটোরিক্সা গুলিকে দুইটি টাইম শিফটে ভাগ করে চলাচল করার জন্য নিয়ম বেধে দিয়েছে।

আজ ১লা এপ্রিল রোজ রবিবার সকাল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

যার ফলে অর্ধেক গাড়ি দুপুর ২.০০ টা হতে রাত ১২.০০ টা পর্যন্ত চলাচল করবে এবং বাকী অর্ধেক গাড়ি রাত ১২.০০ টা হতে দুপুর ২ টা পর্যন্ত চলাচল করতে পারবে।সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন,এতে করে শহরে চলাচল করা যানবাহনের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে এবং যানজট অনেকাংশ কমিয়ে আনা যাবে।এছাড়া জানা যায় যেসকল চালকগন এই নিয়ম মেনে চলবে না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে শহরের মধ্যে চলাচল কারী যানবাহনের নতুন ভাড়া তালিকাও প্রণয়ন করা হয়েছে।এ নিয়ে চালক ও যাএী সাধারনের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।
চালকদের অনেকেই বলেছে নতুন এ নিয়মের ফলে যদিও বেশ কিছু রুটে ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে তবু তাদের অায়ের পরিমানটা কমে গিয়েছে অার সাধারন যাএীরা ভাড়া বৃদ্ধির রিরূদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছেন।

সব শেষে এখন দেখবার বিষয় কতখানি যানজট নিরসন করতে পারে এই নতুন শিফট পদ্ধতি।

নিউজটি শেয়ার করুন

ট্যাগস :

টাংগাইল শহরকে যানজট মুক্ত রাখতে যান চলাচলের দুই শিফট পদ্ধতি আজ থেকে কার্যকর

আপডেট সময় : ০৯:১৭:৩৮ পূর্বাহ্ন, রবিবার, ১ এপ্রিল ২০১৮

চেতনা নিউজ ডেস্ক:টাংগাইল শহর,জেলার প্রাণকেন্দ্র এটি।জেলার সব গুরুত্বপূর্ণ অফিস-অাদালত,বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান সহ গুরুত্বপূর্ণ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান শহরের মধ্যে বিদ্যমান। শহরের ভিতর প্রধান সড়ক ব্যতীত বেশ কয়েকটি প্বার্শ রাস্তা থাকলেও প্বার্শ রাস্তাগুলি সংস্কার করার কারনে শহরমুখী সকল যানবাহন চলাচলের একমাএ পথ হয়ে দাঁড়িয়েছে শহরের প্রধান সড়কটি।তাই প্রয়োজনের অধিক যানবাহন চলাচল করায় প্রায়শই বড় ধরনের যানজটের সৃষ্টি হয়।যার ফলে ভোগান্তিতে পড়েন জনসাধারণ। অর্থনৈতিক লোকসান ছাড়াও মানসিক ক্ষতির মুখে পড়েন প্রতিদিন শহরে যাতায়াত করা কয়েক লক্ষাধিক মানুষ।

এরই প্রতিকার হিসেবে টাংগাইল পৌরসভা এক ভিন্ন ধরনের উদ্দ্যোগ গ্রহণ করে।শহরের মধ্যে চলাচল করা ৪ হাজারের অধিক অটোরিক্সা গুলিকে দুইটি টাইম শিফটে ভাগ করে চলাচল করার জন্য নিয়ম বেধে দিয়েছে।

আজ ১লা এপ্রিল রোজ রবিবার সকাল থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে এ কার্যক্রম শুরু হয়।

যার ফলে অর্ধেক গাড়ি দুপুর ২.০০ টা হতে রাত ১২.০০ টা পর্যন্ত চলাচল করবে এবং বাকী অর্ধেক গাড়ি রাত ১২.০০ টা হতে দুপুর ২ টা পর্যন্ত চলাচল করতে পারবে।সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন,এতে করে শহরে চলাচল করা যানবাহনের সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা যাবে এবং যানজট অনেকাংশ কমিয়ে আনা যাবে।এছাড়া জানা যায় যেসকল চালকগন এই নিয়ম মেনে চলবে না তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে শহরের মধ্যে চলাচল কারী যানবাহনের নতুন ভাড়া তালিকাও প্রণয়ন করা হয়েছে।এ নিয়ে চালক ও যাএী সাধারনের মধ্যে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে।
চালকদের অনেকেই বলেছে নতুন এ নিয়মের ফলে যদিও বেশ কিছু রুটে ভাড়া বৃদ্ধি করা হয়েছে তবু তাদের অায়ের পরিমানটা কমে গিয়েছে অার সাধারন যাএীরা ভাড়া বৃদ্ধির রিরূদ্ধে ক্ষোভ জানিয়েছেন।

সব শেষে এখন দেখবার বিষয় কতখানি যানজট নিরসন করতে পারে এই নতুন শিফট পদ্ধতি।