শিরোনাম
টাঙ্গাইলে বাছিরন নেছা উচ্চ বিদ্যালয়ে ৫৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালন Headline Bullet       টাঙ্গাইলে বাণিজ্যিকভাবে চাষ হচ্ছে মহৌষধি ‘ননী ফল’ Headline Bullet       কয়লা সংকট সমাধানের দাবিতে টাঙ্গাইলে ইট মালিক সমিতির মানববন্ধন Headline Bullet       ভূঞাপুরে ছোট ভাইকে বাঁচাতে লাঠির আঘাতে প্রাণ হারাল বড় ভাই, গ্রেফতার ৪ Headline Bullet       উৎসাহ ও উদ্দিপনার মধ্য দিয়ে মির্জাপুর কম্ফিট কম্পোজিট নীট লি. এ শ্রমিকদের ভোট গ্রহন। Headline Bullet       বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে টাঙ্গাইল বালক দল চ্যাম্পিয়ন Headline Bullet       কালিহাতীর প্রাক্তন শিক্ষক শম্ভূনাথ আর্যের পরলোকগমন Headline Bullet       সভাপতি রুহান সম্পাদক রাজন মির্জাপুরে ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত Headline Bullet       মির্জাপুরে মানবতায় আমরা সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত Headline Bullet       জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কোরবান আলী আর নেই Headline Bullet      

টাঙ্গাইলে পরকীয়ার কারণে স্ত্রী কর্তৃক স্বামী হত্যার রহস্য উদঘাটন, গ্রেফতার ৩

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ০৯ জানুয়ারী ২০২২ - ০৫:৩২:০৫ পিএম

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক : পরকীয়ার কারণে স্ত্রী কর্তৃক স্বামী হত্যার রহস্য উদঘাটন সহ ০৩ জন আসামী গ্রেফতার করলো টাঙ্গাইল জেলা গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি উত্তর)। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, বিগত ২৪ ডিসেম্বর ২০২১ ইং বঙ্গবন্ধুসেতুর পূর্ব থানাধীন সল্লা এলাকায় ঢাকা-উত্তরবঙ্গ মহাসড়কের ১৩-১৪ নং ব্রীজের মাঝামাঝি মহাসড়ক হতে অনুমান ৭০ গজ দক্ষিণে পুকুর পাড়ে কলা বাগানের ভিতরে ইমান হোসেন (২৬) কে অজ্ঞাতনামা আসামীরা হত্যা করে ফেলে যায়। এই সংক্রান্তে ভিকটিমের বাবা মোঃ ইসমাইল হোসেন বাদী হয়ে বঙ্গবন্ধুসেতু পূর্ব থানার মামলা করেন। নামলা নং-০১, তারিখ ২৬/১২/২০২১ ধারা ৩০২/২০১/৩৪/৩৭৯ পেনাল কোড। উক্ত হত্যা মামলার ঘটনাটি লোমহর্ষক এবং চাঞ্চল্যকর হওয়ার কারনে টাঙ্গাইল জেলার পুলিশ সুপার সরকার মোহাম্মদ কায়সার উক্ত ঘটনার মূল রহস্য উদঘাটনের জন্য অফিসার ইনচার্জ ডিবি (উত্তর), টাঙ্গাইল এর উপর তদন্তভার প্রদান করেন। অফিসার ইনচার্জ ডিবি (উত্তর) মোঃ হেলাল উদ্দিন এর দিক নিদের্শনায় এসআই মোঃ জাহাঙ্গীর আলম নেতৃত্বে সঙ্গীয় এসআই মোঃ আহাসনুজ্জামান, এসআই আবু সিদ্দিক, এসআই মোঃ আবেদ আলী, এএসআই মোঃ সৈয়দ হোসেন, কনস্টেবল মোঃ ফরিদুজ্জামান, কনস্টেবল মোঃ মামুন হোসেন, কনস্টেবল মোঃ সাজু মিয়া এবং নারী কনস্টেবল রিক্তা আক্তার তাদের একটি চৌকস টিম নিরন্তর প্রচেষ্টার মাধ্যমে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে ঘটনার রহস্য উদঘাটন করে। হত্যার সাথে জড়িত ব্যক্তিদের অবস্থান সনাক্ত পূর্বক টাঙ্গাইল জেলার বিভিন্ন স্থান থেকে আসামীদের গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়। গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিজ্ঞ আদালতে প্রেরণ করলে আসামীগণ ফৌজদারী কার্যবিধি আইনের ১৬৪ ধারা মোতাবেক হত্যার সাথে জড়িত থাকার বিষয়ে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি প্রদান করেন। আসামীগণকে পরবর্তীতে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়। আসামিরা হলো টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার দেওপুর গ্রামের খাদিজা (২১), ভূঞাপুর উপজেলার সিরাজকান্দি দক্ষিণপাড়া গ্রামের সবুর ওরফে বাবু (২০) ও পাবনা জেলার জনি শেখ (২৫)।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: