শিরোনাম
টাঙ্গাইল স্বেচ্ছাসেবী ফাউন্ডেশনের ১ম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উদযাপন       কলেজ শিক্ষক হত্যার প্রতিবাদে টাঙ্গাইলে মানববন্ধন       টাঙ্গাইলের পোড়াবাড়ী ইউনিয়নের বন্যার্ত অসহায় ক্ষুধার্ত মানুষের পাশে বি এন পি নেতা ফরহাদ ইকবাল       র‌্যাব ও ইপিলিয়ন যৌথ উদ্যোগে সিরাজগঞ্জে বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ       মির্জাপুরে নেশার টাকার জন্য ছেলের হাতে মা খুন       টাঙ্গাইলে স্বাস্থ্যবিধি না মানায় ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযানে আর্থিক জরিমানা ও মাস্ক বিতরণ       ঈদুল আজহা উপলক্ষে টাঙ্গাইল মহাসড়কে যানজট নিরসনে মাঠে থাকবে ৬০০ পুলিশ       টাঙ্গাইলে ডিসি’সহ নতুন করে ৫২ জন করোনায় আক্রান্ত, মোট আক্রান্ত- ১৫১৫       টাঙ্গাইলে বিএসইও এর উদ্যোগে তিন শতাধিক বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ       টাঙ্গাইলে মোটর সাইকেল চোর চক্রের ৩ সদস্য গ্রেফতার ১টি মোটর সাইকেল উদ্ধার      

টাঙ্গাইলে সংবাদ সম্মেলন ,আদালতের স্থিতাবস্থা অমাণ্য করে স্থাপনা নির্মাণ

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ২৭ জুন ২০২০ - ০৫:২১:০৩ পিএম

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক :টাঙ্গাইল মির্জাপুর উপজেলার গোড়াই মোমিননগর এলাকায় ভূমি দস্যু শওকত আদালতের স্থিতাবস্থা অমাণ্য করে ব্যক্তি মালিকানাধীন জায়গায় প্রভাব খাঁটিয়ে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করছে । একই সাথে ওই জমির মালিককে মিথ্যা মামলা দিয়ে হয় রানি করা হচ্ছে বলে শনিবার (২৭জুন) দুপুরে টাঙ্গাইল প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব অভিযোগ করা হয়।

খোরশেদ আলমের পক্ষে তার ভাতিজা আবু সাদেক মোহাম্মদ মুসা সংবাদ সম্মেলনে বলেন,টাঙ্গাইল মির্জাপুরে যুঁই যুথি ফিলিং স্টেশনের মালিক হুমায়ূন কবির ও তার ছোট ভাই শওকত আলী মালিকানাধীন জায়গায় প্রভাব খাঁটিয়ে অবৈধ স্থাপনা নির্মাণ করছে।
মোহাম্মদ মুসা আরো বলেন, গোড়াই মোমিন নগর মৌজায় ১২ শতাংশ জায়গায় ১৯৮৬ সালে প্রস্তাবিত মার্কেটে বাসা-বাড়ি নির্মাণ করে। ভাড়াটিয়ার মাধ্যমে ভোগ দখল করছেন। ওই জমি নিয়ে ২০০২ সালে মির্জাপুরের সিনিয়র জজ আদালতে বাটোয়ারা মামলা দায়ের করেন একই গ্রামের হুমায়ুন কবির। বিগত ২০১২ সালে ওই জমি দখল করার চেষ্টা করেন হুমায়ুন। তখন খোরশেদ আলম স্থাপনা নির্মাণে
স্থিতাবস্থা চেয়ে একই আদালতে আবেদন করলে আদালত ২০১২ সালের(২৪জানুয়ারি) মামলা নিস্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত স্থিতাবস্থা বজায় রাখার নির্দেশ দেয়। কিন্তু সে নির্দেশ অমাণ্য করে হুমায়ুন কবির ও শওকত আলী লোকজন নিয়ে অবৈধ ভাবে স্থাপনা নির্মাণ করছে।
আবু সাদেক মোহাম্মদ মুসা সংবাদ সম্মেলনে বলেন,হুমায়ুন কবির ও তার ছোট ভাই শওকত আলী আদালতের আদেশ অমাণ্য করে স্থাপনা নির্মাণ অব্যাহত রেখেছে। সেই সাথে তারা রাজতৈতিক প্রভাব খাঁটিয়ে আমাদের নানা ভাবে হয় রানি করছে।
এ প্রসঙ্গে শওকত আলীর সাথে ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন,এগুলি সব ভিত্তিহীন। পরে তিনি বলেন,খোরশেদ আলমের বাবা আমার বাবাকে লিখে দিয়েছিল।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: