শিরোনাম
টাঙ্গাইলে নতুন করে ২জন করোনায় আক্রান্ত       কালিহাতীতে মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তার উদ্যোগে হেলথ ক্যাম্প অনুষ্ঠিত       টাঙ্গাইলে বঙ্গবন্ধু টি-২০ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট ১০ ডিসেম্বর উদ্বোধন       সাংবাদিক এহসানুল হক শাহীনের ৪র্থ মৃত্যু বার্ষিকী পালিত       কালিহাতীতে ট্রাক-মাইক্রোবাস সংঘর্ষে নিহত ২       টাঙ্গাইলে লৌহজং নদ দখলমুক্ত দিবস পালিত       সভাপতি মামুন, সম্পাদক মোফিজুর রহমান খান বাবু ও কোষাধ্যক্ষ মন্টু       টাঙ্গাইলে সম্মিলিত সামাজিক আন্দোলন এর মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত       বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব রেলওয়ে সেতু নির্মানের ভিত্তিফলক উদ্বোধন       কর্মবিরতিতে ইউএনও-এসিল্যান্ড অফিসের কর্মচারীরা      

টাঙ্গাইলে জ্বর-সর্দি-কাঁশিতে একজনের মৃত্যু, করোনা সন্দেহে বাড়ি লকডাউন

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ৩১ মার্চ ২০২০ - ০৭:৩৭:২৯ পিএম

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক : টাঙ্গাইলের মধুপুরে জ্বর ও সর্দি কাঁশিতে আক্রান্ত হয়ে হবিবুর রহমান (৪৫) নামে একজনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) দুপুরে তিনি মারা যান।

অসুস্থ্য হয়ে গত রোববার (২২ মার্চ) ঢাকা থেকে বাড়িতে এসেছিলেন ত‌িনি। নিহত হবিবুর রহমান উপজেলার মহিষমারা ইউনিয়নের টেক্কার বাজার গ্রামের হাসেন আলীর ছেলে।  

জানা যায়, হাবিবুর ঢাকায় ফের‌ি করে পান বিক্র‌ি করতেন। রোববার জ্বর নিয়ে বাড়িতে এসেছিলেন। বিষয়টি তার পরিবারের লোকজন গোপন রেখেছিল। সোমবার থেকে তার পাতলা পায়খানা শুরু হয়েছিল। মঙ্গলবার রক্ত বমি করতে করতে তার মৃত্যু হয়। দুপুরে তার মৃত্যুর পরই এলাকায় ‘করোনায় আক্রান্ত’ হয়ে মারা গেছে বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে। আশেপাশের বাড়ির লোকজনও দূরে সরে যায়। 

মধুপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আরিফা জহুরা জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স’র টিম পাঠিয়ে  তারা নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। 

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. ওয়াহীদুজ্জামান জানান, আইইডিডিসিআর এর প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত চিকিৎসক ও মধুপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডাক্তার রুবিনার নেতৃত্বে একটি দল কতৃক মৃত ব্যক্তির নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ওই ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলো কিনা তা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। ওই দলের তত্ত্বাবধানে মৃত ব্যক্তির দাফন হবে। মৃত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

টাঙ্গাইলের মধুপুরে জ্বর, সর্দি ও কাশিতে এক পোশাক শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। এতে ওই বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুরে উপজেলার মহিষমারা ইউপির টেক্কার বাজার গ্রামে ৩৫ বছর বয়সী ওই যুবকের মৃত্যু হয়। অসুস্থ হয়ে রোববার ঢাকা থেকে তিনি বাড়ি ফেরেন।

ইউপি চেয়ারম্যান কাজী মোতালেব হোসেন জানান, ঢাকায় একটি গার্মেন্টসে চাকরি করতেন ওই যুবক। রোববার জ্বর নিয়ে বাড়িতে আসেন। বিষয়টি তার স্বজনরা গোপন রেখেছিলেন। সোমবার থেকে তার ডায়রিয়া ও মঙ্গলবার রক্ত বমি হয়। রক্ত বমি করতে করতেই তিনি মারা যান।

তিনি আরো জানান, করোনা আক্রান্ত হয়ে ওই যুবক মারা গেছেন বলে খবর ছড়িয়ে পড়ে। এতে আশপাশের বাড়ির লোকজন দূরে সরে যায়।

মধুপুরের ইউএনও আরিফা জহুরা জানান, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিম পাঠানো হয়েছে। তারা নমুনা সংগ্রহ করবেন।

টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. ওয়াহীদুজ্জামান জানান, ওই ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত ছিল কিনা তা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হবে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টিমের তত্ত্বাবধানে তার দাফন হবে। আপাতত মৃত ব্যক্তির বাড়ি লকডাউন করা হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: