শিরোনাম
বাংড়া ইউনিয়ন ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে জনপ্রিয়তার শীর্ষে উজ্জল হোসেন Headline Bullet       দেলদুয়ারে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষককে জুতাপেটা Headline Bullet       টাঙ্গাইল জেলা মহিলা দলের সভাপতি নিলুফার ,সম্পাদক রকসি Headline Bullet       টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা গ্রন্থের প্রকাশনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত Headline Bullet       বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে টুকুর কটুক্তির প্রতিবাদে ভূঞাপুরে আ.লীগের বিক্ষোভ  Headline Bullet       মির্জাপুর পৌরসভাকে আধুনিক পৌরসভায় রুপান্তর করতে চাই—মেয়র সালমা আক্তার শিমুল Headline Bullet       কবি বাবুলের হাতে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক তুলে দিলেন – এমপি শুভ Headline Bullet       বাসাইলে রাস্তার কাজ না করেই টাকা আত্মসাতের অভিযোগ Headline Bullet       ‘হাতুড়ি পেটা করে ছেলেকে হত্যা, মানববন্ধনে খুনিদের ফাঁসি চান মা’ Headline Bullet       টাঙ্গাইলে ট্রাকের পেছনে ধাক্কা লেগে বাসের হেলপার নিহত Headline Bullet      

নিখোঁজের তিন মাস পর প্রবাসী আক্কাস আলী উদ্ধার

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ০৬ অক্টোবর ২০১৯ - ১১:৩০:৫৭ এএম

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক ঃ টাঙ্গাইলে তিন মাস নিখোঁজের পর সৌদি প্রবাসী মো. আক্কাস আলী (২৮) কে ঢাকার গুলশান-২ থেকে উদ্ধার করেছে ডিবি (পুলিশ দক্ষিন)।
শনিবার দুপুরে জেলা পুলিশ সুপার কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এক প্রেস ব্রিফিং এ তথ্য প্রদান করেন টাঙ্গাইল জেলা পুলিশ সুপার সঞ্জিত কুমার রায় (বিপিএম)। এসময় তিনি সাংবাদিকদের জানান, (২৫জুন) টাঙ্গাইলের সখিপুর উপজেলার কৈয়ামধু গ্রামের মো. জাবেদ আলীর ছেলে সৌদি প্রবাসী মো. আক্কাস আলী তার নিজ বাসায় আসেন।
পরে (২৬ জুন) সৌদি থেকে নিয়ে আশা বন্ধুর মালামাল দেওয়ার জন্য সখিপুর থেকে টাঙ্গাইল সদর তারটিয়া ভাতকুড়া গ্রামে তার বন্ধুকে মালামাল বুঝিয়া দেয়া হয়। মালামালা বুঝিয়ে দেওয়ার পড় থেকে তিনি নিখোঁজ হয়। (২৭জুন) এ ব্যাপারে ভিকটিমের বাবা টাঙ্গাইল মডেল থানায় জিডি করেন যার নং ১৩৪০। প্রেস ব্রিফিং এ পুলিশ সুপার আরো জানান, (২৮জুন) সৌদি প্রবাসির বিবাহ অনুষ্ঠানের ধার্য করা ছিল পরে নিখোঁজ আক্কাসের কোন সন্ধান না পেয়ে আক্কাসের বাবা বাদী হয়ে টাঙ্গাইল মডেল থানায় মামলা করেন মামলা নং-১৩। (৯জুলাই) ৩৬৫/৩৪ ধারায় পেনাল কোড দায়ের করেন।
ভিকটিমের নিখোঁজের বিষয়টি একটি চাঞ্চল্যকর ঘটনা হওয়ায় মামলাটি ঢাকা রেঞ্জ মনিটরিং সেলের আওতাভূক্ত হইলে ঢাকা রেঞ্জ এর ডিআইজি মামলাটি তদন্তভার ডিবির একজন দক্ষ কর্মকর্তা উপর ছেড়েদেন এবং তদন্তর জন্য টাঙ্গাইলে পুলিশ সুপারকে নির্দেশ দেন। পরে তথ্য প্রযুক্তি ব্যবহার করে মামলার ভিকটিম আক্কাস আলীর সঠিক অভিযান পরিচালনা করে ভিকটিম আক্কস আলীকে জীবিত অবস্থায় ঢাকা গুলশান-২ থেকে উদ্ধার করা হয়। ভিকটিম কে বর্তমানে ডিবি পুলিশ হেফাজতে রাখা হয়েছে এবং আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: