শিরোনাম
লায়ন্স ক্লাবের আয়োজনে ঘাটাইলে শোকাবহ আগষ্টের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত Headline Bullet       টাঙ্গাইলে চোলাই মদসহ আটক ১ Headline Bullet       বাসাইলে মিথ্যা মামলার প্রতিবাদে পৌর কমিশনারের সাংবাদিক সম্মেলন Headline Bullet       বাসাইল সাব-রেজিস্ট্রারের বদলীর দাবিতে সংবাদ সম্মেলন Headline Bullet       সিরিজ বোমা হামলায় জড়িতদের বিচারের দাবিতে টাঙ্গাইলে আওয়ামীলীগের বিক্ষোভ মিছিল Headline Bullet       অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যান হেকমতের সংবাদ সম্মেলন Headline Bullet       টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে স্কুলছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার Headline Bullet       টাঙ্গাইলে বীরমুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোঃ নুরুল ইসলাম আর নেই Headline Bullet       টাঙ্গাইলে লাইব্রেরিয়ান নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ Headline Bullet       টাঙ্গাইলে সাংবাদিকদের মাঝে অনুদানের চেক প্রদান Headline Bullet      

কালিহাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীরা পর্যাপ্ত পরিমান স্বাস্থ্য সেবা পাচ্ছে না

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ০১ অক্টোবর ২০১৯ - ০৬:১৮:২৪ পিএম


সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক ঃ কালিহাতী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ঘুরে দেখা গেছে নানাবিধ চরম অনিয়মের চিত্র। রোগীর সেবার বদলে অধিকাংশ চিকিৎসক অর্থ বানিজ্যের দিকে বেশি গুরুত্ব দেয়। কালিহাতীতে ৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে ৩৩ জন চিকিৎসকের ব্যাবস্থা থাকলেও সরেজমিন ঘুরে পাওয়া গেছে মাত্র ১১ জন। এই ১১ জন ডাক্তারের উপর নির্ভর করছে উপজেলা বাসীর স্বাস্থ্য সেবা, যে কারণে রোগীরা যথাযথ স্বাস্থ্য সেবা থেকে বরাবরই বঞ্চিত হচ্ছে। অভিযোগ পাওয়া গেছে রোগীরা স্বাস্থ্য সেবা নিতে গেলে কতিপয় অসাধু রিপ্রেজেনটেটিভ ডাক্তারের চেম্বারে গিয়ে ভিড় জমায়। যার ফলে, রোগীদের স্বাস্থ্য সেবা নিতে ব্যাঘাত ঘটে। সেদিকে কতৃপক্ষের দৃষ্টি রাখা প্রয়োজন। জানা গেছে, এই স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত অনুপস্থিত ডাক্তারগন অতি অর্থলোভে বিভিন্ন বেসরকারী হাসপাতাল, ক্লিনিক ও প্রাইভেট প্রেকটিসে বেশি গুরুত্ব দেয়। উপজেলা সরকারী চিকিৎসা কেন্দ্রগুলোতে রোগীসেবার মান সর্বনি¤œ পর্যায়ে নেমে এসেছে। এখানে ডাক্তাররা রোগীদের ২-৩ মিনিট করে সময় দেয়। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের টি.এইচ.এ. ডাঃ মোঃ নজরুল ইসলাম এর কাছ থেকে “দৈনিক বাংলাদেশের আলো”র প্রতিনিধি জানতে পারে যে, ডাক্তার ৩৩ জনের মধ্যে ১১ জন আছেন, ২২ টি পদ শূণ্য আছে। এখানে এনালাইজার মেশিন, আল্ট্রা¯েœাগ্রাম মেশিন, ডিজিটাল এক্সরে মেশিন নাই। ৫০ শয্যা বিশিষ্ট এই হাসপাতালে অধিকাংশই এস.এস.কে রোগী, যাদের জন্য আলাদা আলাদা বেডের প্রয়োজন। পর্যাপ্ত বেডের ব্যাবস্থা না থাকায় সাধারন রোগীরা চিকিৎসা সেবা কম পাচ্ছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: