শিরোনাম
অপপ্রচারের বিরুদ্ধে ইউপি চেয়ারম্যান হেকমতের সংবাদ সম্মেলন Headline Bullet       টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে স্কুলছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার Headline Bullet       টাঙ্গাইলে বীরমুক্তিযোদ্ধা ইঞ্জিনিয়ার মোঃ নুরুল ইসলাম আর নেই Headline Bullet       টাঙ্গাইলে লাইব্রেরিয়ান নিয়োগে অনিয়মের অভিযোগ Headline Bullet       টাঙ্গাইলে সাংবাদিকদের মাঝে অনুদানের চেক প্রদান Headline Bullet       টাঙ্গাইলে সদর থানা ও শহর বিএনপির আহবায়ক কমিটির আনন্দ Headline Bullet       শিহাব হত্যা মামলায় ৪ আসামির আত্মসমর্পণ, জামিন নামঞ্জুর Headline Bullet       বাসাইলে ৪টি ড্রেজার মেশিন ধ্বংস Headline Bullet       তেলের মূল্য বৃদ্ধির প্রতিবাদে টাঙ্গাইলে জাতীয় পার্টির বিক্ষোভ ও সমাবেশ Headline Bullet       চলন্ত বাসে ডাকাতি ও ধর্ষণে : মূল পরিকল্পনাকারীসহ ১০ ডাকাত গ্রেফতার Headline Bullet      

ছেলেধরা সন্দেহে ভ্যানচালককে গণপিটুনি, গ্রেফতার ৬

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ২৩ জুলাই ২০১৯ - ০৫:৪৬:১১ পিএম

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক : টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে ছেলে ধরা সন্দেহে মিনু মিয়া(৩০) নামে এক ভ্যানচালককে গণপিটুনির ঘটনায় ৬ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সোমবার(২২ জুলাই) দিনগত রাতভর অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।

গ্রেপ্তারকৃতরা হচ্ছেন, কালিহাতী উপজেলার নাগা চৌধুরীবাড়ী গ্রামের মৃত তরিকুল আলম সিদ্দিকীর ছেলে মাইনুল হক হিটু(৩৭), নাগা গ্রামের সন্তোষ চন্দ্র মালুর ছেলে প্রভাত চন্দ্র মালু(১৯), একই গ্রামের আনোয়ার হোসেন খানের ছেলে শিশির আহম্মেদ খান(৩২), মৃত নুরুল ইসলামের ছেলে মিজানুর রহমান তালুকদার(৪৭), আনোয়ার হোসেন খানের ছেলে ওমর (৩২) এবং পালিমা গ্রামের ফজলু মিয়ার ছেলে আলামিন ইসলাম(১৯)।

মঙ্গলবার(২৩ জুলাই) দুপুরে পুলিশ সুপারের কার্যালয়ে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (ডিএসবি) শফিকুল ইসলাম এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, গত ২১ জুলাই(রোববার) ছেলে ধরা সন্দেহে কালিহাতী উপজেলায় সয়া হাটে ভ্যানচালক মিনু মিয়াকে গণপিটুনি দেয় স্থানীয়রা। কিন্তু তিনি ছেলে ধরা ছিলেন না। মূলত তিনি হাটে মাছ ধরার জাল কিনতে গিয়েছিলেন। এ ঘটনায় আহতের ভাই রাজিব হোসেন সোমবার রাতে বাদি হয়ে থানায় মামলা দায়ের করেন। পরে রাতেই অভিযান চালিয়ে এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এছাড়া জেলায় আরো দুই জনকে ছেলে ধরা সন্দেহে গণপিটুনি দেয়া হয়। কিন্তু তারাও ছেলে ধরা ছিল না। যদি কাউকে সন্দেহ হয় তাহলে পুলিশকে জানানোর জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। পুলিশ তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা নেবে।Facebook

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: