শিরোনাম
বাংড়া ইউনিয়ন ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডে জনপ্রিয়তার শীর্ষে উজ্জল হোসেন Headline Bullet       দেলদুয়ারে বলাৎকারের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষককে জুতাপেটা Headline Bullet       টাঙ্গাইল জেলা মহিলা দলের সভাপতি নিলুফার ,সম্পাদক রকসি Headline Bullet       টাঙ্গাইল সদর উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা গ্রন্থের প্রকাশনা ও সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত Headline Bullet       বঙ্গবন্ধু ও প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে টুকুর কটুক্তির প্রতিবাদে ভূঞাপুরে আ.লীগের বিক্ষোভ  Headline Bullet       মির্জাপুর পৌরসভাকে আধুনিক পৌরসভায় রুপান্তর করতে চাই—মেয়র সালমা আক্তার শিমুল Headline Bullet       কবি বাবুলের হাতে প্রধানমন্ত্রীর অনুদানের চেক তুলে দিলেন – এমপি শুভ Headline Bullet       বাসাইলে রাস্তার কাজ না করেই টাকা আত্মসাতের অভিযোগ Headline Bullet       ‘হাতুড়ি পেটা করে ছেলেকে হত্যা, মানববন্ধনে খুনিদের ফাঁসি চান মা’ Headline Bullet       টাঙ্গাইলে ট্রাকের পেছনে ধাক্কা লেগে বাসের হেলপার নিহত Headline Bullet      

টাঙ্গাইলে ৫ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মুয়াজ্জিন গ্রেফতার

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ২২ জুন ২০১৯ - ০৩:৩৩:৩৮ পিএম


সোনালী বাংলাদেশ নিউজ ডেস্ক :
টাঙ্গাইলের সখীপুরে পঞ্চম শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার মামলায় রুহুল আমিন (৩৫) নামের এক জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। সখীপুর উপজেলার কুতুবপুর বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন। বৃহস্পতিবার রাতে ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া উপজেলার বড়কা গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।
শুক্রবার রুহুল আমিনকে টাঙ্গাইল আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। এর আগে ওই ছাত্রীর মা গত সোমবার সখীপুর থানায় ওই মুয়াজ্জিনকে একমাত্র আসামি করে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা করেন। গ্রেফতারকৃত রুহুল আমিন একবছর ধরে সখীপুর উপজেলার কুতুবপুর বাজার কেন্দ্রীয় জামে মসজিদের মুয়াজ্জিন পদে চাকরি করতো। ওই ঘটনার পর থেকে সে পালিয়ে যায়।
পুলিশ ও মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কুতুপুর গ্রামের ৫ম শ্রেণিতে পড়–য়া এক ছাত্রীর মাথা ব্যথা রোগ সারাতে ঝাড়-ফুক দিতে ছাত্রীর বাড়িতে যায় মসজিদের মুয়াজ্জিন রুহুল আমিন। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রীকে জ্বিনে ধরেছে বলে জানায় সে। পরে জ্বিন ছাড়াতে বাটিতে করে সরিষার তেল নিয়ে ওই মুয়াজ্জিন ছাত্রীকে একা একটি ঘরে নিয়ে গিয়ে চোখে সরিষার তেল লাগিয়ে দেয়।পরে যার ফুকের এক পর্যায়ে ছাত্রীর কাপড়-চোপড় খুলে ধর্ষণের চেষ্টা করলে সেই সময় মেয়েটি চিৎকার করে ওঠে। চিৎকার শুনে বাড়ির লোকজন মুয়াজ্জিনকে আটক করে গণধোলাই দেয়। পরে এ বিষয়ে শালিশ করা হবে বলে তাকে স্থানীয় মাতাব্বররা ছেড়ে দেয়। এ ঘটনার কোন সোরাহা না মেলাতে পেরে ওই ছাত্রীর মা গত সোমবার সখীপুর থানায় মুয়াজ্জিনকে একমাত্র আসামি করে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা করলে বৃহস্পতিবার রাতে পুলিশ মুয়াজ্জিন রুহুল আমীনকে গ্রেফতার করে।এ ব্যাপারে সখীপুর থানার ওসি (তদন্ত) এএইচএম লুৎফুল কবির বলেন, ধর্ষণ চেষ্টা মামলায় রুহুল আমিনকে গ্রেফতার করে শুক্রবার সকালে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: