শিরোনাম
মির্জাপুর সরকারি কলেজে অরিয়েন্টেশন Headline Bullet       টাঙ্গাইলে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য ১০ টাকার হোটেল Headline Bullet       জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিরাপদ অভিবাসন ও দক্ষতা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত Headline Bullet       টাঙ্গাইলে বিএনপির লিফলেট বিতরণ Headline Bullet       নাগরপুরে যানজট নিরসনে মোবাইল কোর্ট Headline Bullet       মির্জাপুরে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচি উদ্ধুদ্ধকরন উদ্বুদ্ধকরন কর্মশালা অনুষ্ঠিত। Headline Bullet       মির্জাপুরে ভারতেশ্বরী হোমসের ছাত্রীর আত্মহত্যা Headline Bullet       গণমুক্তি পত্রিকার ৫০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে টাঙ্গাইলে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ Headline Bullet       টাঙ্গাইলে ক্ষমা পেলেন বিদ্রোহী নির্বাচন করা চার উপজেলা চেয়ারম্যান Headline Bullet       নাগরপুরে এসএসসি ৯৩ ব্যাচ এর ৩০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান Headline Bullet      

কালিহাতীতে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিলের দাবী এলাকাবাসীর

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ১৪ জুলাই ২০১৮ - ০৯:২১:৫৬ পিএম

 

সোহেল রানা, কালিহাতী প্রতিনিধি : টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার পারখী ইউনিয়নের আমজানী গ্রামের ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা  বাছাই কমিটিকে ভূল তথ্য দিয়ে চুড়ান্ত তালিকায় স্থান করে নিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা তারা মিয়া। তার মুক্তিযোদ্ধা সনদ বাতিলের দাবীতে এলাকাবাসীর পক্ষে গত (১২ জুলাই) বৃহস্পতিবার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তারের নিকট অভিযোগপত্র জমা দিয়েছেন শাহজাহান নামের এক ব্যক্তি। এ নিয়ে উপজেলার মুক্তিযোদ্ধাদের মধ্যে পক্ষে-বিপক্ষে সমালোচনা চলছে।

এলাকাবাসীর দাবী তারা মিয়া কখনো মুক্তিযোদ্ধা ছিলেননা এবং মুক্তিযুদ্ধে অংশ গ্রহন করেননি। তিনি মুক্তিযুদ্ধের আর্দশ বিশ্বাস করেন না। এমনকি মুক্তিযুদ্ধকালীন সময়ে বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান করে মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী কর্মকান্ডে লিপ্ত ছিলেন। উপজেলার আমজানী গ্রামের মৃত আফাজ উদ্দিনের ছেলে তারা মিয়া জাতীয় পরিচয়পত্র জাল করে ভূয়া মুক্তিযোদ্ধা সনদ সংগ্রহ করেন। সম্প্রতি উপজেলা নির্বাচনের ভোটার তালিকা অনুসারে তার জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর ৯৩২৫৪৩৪৬৬৩০১ সেখানে জন্ম তারিখ ১২ মে ১৯৫৭। কিন্তু মুক্তিযোদ্ধা সনদে পরিচয়পত্র নম্বর ৯৩১৪৭৮৩৪৬৬৩০১ এবং সেখানে জন্ম তারিখ ১২ মে ১৯৫১। অন্যদিকে এসএসসি পরীক্ষার রেজিষ্ট্রেশন কার্ডে তার জন্ম তারিখ ১৩ আগষ্ট ১৯৫৯ সাল।

একই ব্যাক্তির তিনটি জন্ম তারিখের বিষয়ে তারা মিয়াকে প্রশ্ন করা হলে তিনি প্রথমে অস্বীকার করেন। পরবর্তীতে ভূল সংশোধন করেছেন বলে জানান।এদিকে যাচাই বাছাই কমিটির তালিকা থেকে তারা মিয়ার নাম বাতিল না হওয়ার বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর এলাকার মুক্তিযোদ্ধাদের মাঝে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুছাম্মৎ শাহীনা আক্তার বলেন, অভিযোগপত্রটি আমি এখনো দেখি নি। অভিযোগটি দেখে সত্য প্রমানিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: