শিরোনাম
বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে টাঙ্গাইল বালক দল চ্যাম্পিয়ন Headline Bullet       কালিহাতীর প্রাক্তন শিক্ষক শম্ভূনাথ আর্যের পরলোকগমন Headline Bullet       সভাপতি রুহান সম্পাদক রাজন মির্জাপুরে ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত Headline Bullet       মির্জাপুরে মানবতায় আমরা সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত Headline Bullet       জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কোরবান আলী আর নেই Headline Bullet       ঔষুধসহ ভেজাল খাবারের প্রতিবাদে সোচ্চার ক্যাব Headline Bullet       মির্জাপুরে মহেড়া পেপার মিলের পঞ্চম বর্ষপুর্তি Headline Bullet       মির্জাপুর শীতার্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ Headline Bullet       মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নিহত Headline Bullet       যাঁরা নির্বাচন কমিশনার হন তাঁদের মেরুদণ্ড নাই, সখীপুরে জনসভায় কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম Headline Bullet      

টাঙ্গাইলে এবার স্কুল ছাত্রীকে হাত পা বেধে ধর্ষনের অভিযোগ

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ২৪ এপ্রিল ২০১৮ - ০৩:৫৫:১৬ পিএম

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে এক যুবলীগ নেতার বিরুদ্ধে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রীকে হাত পা বেধে ধর্ষনের অভিযোগ উঠেছে। ধর্ষিতা ওই ছাত্রী (১৩) স্থানীয় আলহাজ আইন উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। সে উপজেলার জালাই গ্রামের রশিদ সিকদারের মেয়ে। ধর্ষক যুবলীগ নেতা সাজ্জাত হোসেন (৩২) একই গ্রামের শাহাদৎ হোসেনের পুত্র। সে দপ্তিয়র ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ন আহবায়ক। সোমবার  বেলা ২টায় ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে গত শনিবার উপজেলার চরাঞ্চাল দপ্তিয়র ইউনিয়নের জালাই গ্রামে। নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি ) মাইন উদ্দিন অভিযোগের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। ধর্ষিতার পরিবার সূত্রে জানা যায়, উপজেলার দপ্তিয়র ইউনিয়নের জালাই গ্রামের শাহাদৎ হোসেনের পুত্র যুবলীগ নেতা সাজ্জাত হোসেন (৩২) একই গ্রামের রশিদ সিকদারের নাবালিকা মেয়েকে প্রায়ই উত্যক্ত করত। বিভিন্ন সময়ে নানা ধরনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে কুপ্রস্তাব দিত। সাজ্জাত হোসেন গত শনিবার রাত সাড়ে আটটার দিকে ওই ছাত্রীর মোবাইল ফোনে ডেকে আনে। পরে তাকে পার্শবর্তী তোতা সিকদারের বাশবাগানে নিয়ে হাত পা বেধে ফেলে। এ সময় ছাত্রীটি চিৎকারের চেষ্টা করলে মুখ বেধে তাকে জোর পূর্বক ধর্ষন করে ফেলে রেখে পালিয়ে যায় সে। পরে ধর্ষিতার স্বজনরা অনেক খুজাখুজি করে ওই বাশবাগান থেকে তাকে আহতবস্থায় উদ্ধার করে স্থানীয়ভাবে চিকিৎসা দেয়। ঘটনাটি এলাকায় জানাজানি হলে চাঞ্চল্যের সৃষ্ঠি হয়। ধর্ষক প্রভাবশালী হওয়ায় বিষয়টি এলাকায় ধামাচাপা দেয়ার চেষ্টা করে। মিলিত হয় একাধিকবার সালিশী বৈঠকে। বিষয়টি অমিমাংসিত থাকায় সোমবার ধর্ষিতার পিতা বাদী হয়ে নাগরপুর থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ড মেম্বার রোশনাই সিকদার বলেন, ধর্ষনের ঘটনাটি আমি ধর্ষিতার মুখ থেকে শুনেছি। এ নিয়ে এলাকায় মিমাংসার চেষ্টাও করা হয়েছে। ধর্ষক প্রভাবশালী হওয়ায় তা সম্ভব হয়নি।

নাগরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ ( ওসি ) মাইন উদ্দিন বলেন, এ বিষয়ে একটি অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যাবস্থা নেয়া হবে। নাগরপুর উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মীর আহম্মেদ শাহীন এ প্রসঙ্গে জানান, ঘটনার পরপরই যুবলীগের ওই নেতাকে কেন বহিস্কার করা হবে না মর্মে কারন দর্শানোর নোটিশ পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: