শিরোনাম
বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টে টাঙ্গাইল বালক দল চ্যাম্পিয়ন Headline Bullet       কালিহাতীর প্রাক্তন শিক্ষক শম্ভূনাথ আর্যের পরলোকগমন Headline Bullet       সভাপতি রুহান সম্পাদক রাজন মির্জাপুরে ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত Headline Bullet       মির্জাপুরে মানবতায় আমরা সংগঠনের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত Headline Bullet       জেলা ট্রাক শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি কোরবান আলী আর নেই Headline Bullet       ঔষুধসহ ভেজাল খাবারের প্রতিবাদে সোচ্চার ক্যাব Headline Bullet       মির্জাপুরে মহেড়া পেপার মিলের পঞ্চম বর্ষপুর্তি Headline Bullet       মির্জাপুর শীতার্থদের মাঝে কম্বল বিতরণ Headline Bullet       মোটরসাইকেল দুর্ঘটনায় ভাসানী বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র নিহত Headline Bullet       যাঁরা নির্বাচন কমিশনার হন তাঁদের মেরুদণ্ড নাই, সখীপুরে জনসভায় কাদের সিদ্দিকী বীরউত্তম Headline Bullet      

ভূঞাপুরে ভাইয়ের তৈরি যৌনবর্ধক ঔষুধ খেয়ে আপন ভাইসহ দুইজনের মৃত্যু

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ১৫ মার্চ ২০১৮ - ০৫:৪৯:১৪ পিএম

বৃহস্পতিবার ভোরে ভাইয়ের তৈরি যৌনবর্ধক ঔষুধ (হালুয়া) খেয়ে আপন ভাইসহ মারা গেছেন দুইজন। এতে গুরুতর অসুস্থ্য হয়েছেন আরো দুইজন। নিহতরা সাভারের আশুলিয়া এলাকায় বিভিন্ন পোশাক কারখানায় চাকুরী করতেন।

এঘটনায় গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে সাভারের এনাম মেডিকেল হাসপাতালে দুইজন চিকিৎসাধীন রয়েছেন। নিহত দুইজন টাঙ্গাইলের ভূঞাপুর উপজেলার ধুবলিয়া গ্রামের সুজাত আলীর ছেলে মোতালেব (২৮) ও একই গ্রামের জয়নাল শেখের ছেলে জিল্লুর শেখ। নিহত দুজনের লাশ বৃহস্পতিবার দুপুরে তাদের গ্রামের বাড়িতে দাফন করা হয়েছে।

প্রতিবেশি ও নিহতের স্বজনরা জানায়, নিহত মোতালেব ও জিল্লুর, শামীম, ফরিদ উদ্দিন ও নাসির সাভারের আশুলিয়া এলাকায় পোশাক কারখানায় চাকুরী করতো এবং আশুলিয়ার রপ্তানী এলাকার হাসেম প্লাজার পিছনে একটি বাড়িতে বসবাস করতো। বুধবার রাতে নিহত মোতালেবের ভাই নাসির বিভিন্ন জিনিষ মিশিয়ে যৌনবর্ধক হালুয়া তৈরি করে। পরে সেই হালুয়া খেয়ে ৪জন গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে পড়ে।

এসময় স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে সাভার এনাম মেডিকেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব ও জিল্লুর মারা যায়।

এঘটনায় হালুয়া সেবনকারী শামীম ও ফরিদ উদ্দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

উপজেলার ফলদা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য মজিবর রহমান জানান, বড় ভাই নাসিরের মাধ্যমে শামীম ও প্রতিবেশি জিল্লুর আশুলিয়ায় পোশাক কারখানায় চাকুরী নেয়। তারা একই বাসায় ভাড়া থাকতো। বুধবার রাতে নাসির হালুয়া তৈরি করে কাজে চলে যায়। পরে সেই তৈরি করা হালুয়া মোতালেব, জিল্লুর, ফরিদ ও শামীম খেয়ে অসুস্থ্য হয়ে পড়ে। বৃহস্পতিবার ভোরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোতালেব ও জিল্লুর মারা যায়।গ্রেফতার করি। এ বিষয়ে তার নামে  মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: