শিরোনাম
মির্জাপুর সরকারি কলেজে অরিয়েন্টেশন Headline Bullet       টাঙ্গাইলে সুবিধাবঞ্চিতদের জন্য ১০ টাকার হোটেল Headline Bullet       জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ে নিরাপদ অভিবাসন ও দক্ষতা শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত Headline Bullet       টাঙ্গাইলে বিএনপির লিফলেট বিতরণ Headline Bullet       নাগরপুরে যানজট নিরসনে মোবাইল কোর্ট Headline Bullet       মির্জাপুরে পাঠাভ্যাস উন্নয়ন কর্মসূচি উদ্ধুদ্ধকরন উদ্বুদ্ধকরন কর্মশালা অনুষ্ঠিত। Headline Bullet       মির্জাপুরে ভারতেশ্বরী হোমসের ছাত্রীর আত্মহত্যা Headline Bullet       গণমুক্তি পত্রিকার ৫০তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে টাঙ্গাইলে শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ Headline Bullet       টাঙ্গাইলে ক্ষমা পেলেন বিদ্রোহী নির্বাচন করা চার উপজেলা চেয়ারম্যান Headline Bullet       নাগরপুরে এসএসসি ৯৩ ব্যাচ এর ৩০ বছর পূর্তি অনুষ্ঠান Headline Bullet      

বগুড়ায় আধিপত্য বিস্তারে স্বেচ্ছাসেবক দলের দুপক্ষের সংঘর্ষে নিহত ১ । আহত হয়েছেন অন্তত ৩ জন।

সোনালী বাংলাদেশ নিউজ
সম্পাদনাঃ ২৩ ফেব্রুয়ারী ২০১৮ - ০৯:০৫:৫৭ পিএম

শুক্রবার সদর উপজেলার গোকুল মধ্যপাড়ায় এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে  এ সংঘর্ষ হয় বলে বগুড়া সদর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) কামরুল ইসলাম জানান।

নিহত সনি ইসলাম (২৩) গোকুল মধ্যপাড়ার জামায়াত আলীর ছেলে। তিনি স্থানীয় স্বেচ্ছাসেবক দলের এক কর্মী বলে সংগঠনের পক্ষ থেকে জানানো হয়।

আহতরা হলেন মিজান, হাকিম ও মিজানের স্ত্রী সালমা আক্তার ইশা। তাদের মধ্যে হাকিম ও সালমাকে শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। মিজানকে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে।

স্থানীয় বাদিন্দা রফিকুল ইসলাম বলেন, গোকুল ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সভাপতি মিজানুর রহমানের সঙ্গে সাধারণ সম্পাদক বিপুল ইসলামের দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। রাজনৈতিক নেতৃত্ব ও এলাকায় আধিপত্য বিস্তার নিয়ে তাদের মধ্যে এই বিরোধ।

তিনদিন আগে মিজানুর রহমানের সমর্থকরা বিপুল ইসলামের সমর্থক রাসেল নামে স্বেচ্ছাসেবক দলের এক কর্মীকে মারধর করে বলে জানান রফিকুল।

এর জের ধরে শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে বিপুল ইসলাম তার সমর্থকদের নিয়ে মিজানের বাড়িতে হামলা চালালে সংঘর্ষ শুরু হয়।

রফিকুল বলেন, এই সংঘর্ষে মিজান, সনি, হাকিম ও মিজানের স্ত্রী সালমা আক্তার ইশা আহত হন। এদের মধ্যে সনি ছুরিকাহত হন। পরে এলাকাবাসী এগিয়ে গেলে বিপুল তার দলবল নিয়ে চলে যায়।

পরিদর্শক কামরুল জানান, সংঘর্ষের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ যায় এবং আহতদের উদ্ধার করে শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে।

আহতদের মধ্যে সনি ইসলাম বিকাল পৌনে ৪টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান।

আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় মিজানকে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে বলে জানান পরিদর্শক কামরুল।

 

এ বিভাগের জনপ্রিয় খবর

সর্বশেষ
জনপ্রিয় খবর
%d bloggers like this: